Advertisement
Government on course on PSU Bank Privatisation
Advertisement

Bank Privatisation : ব‍্যাঙ্কিং ক্ষেত্রে বৃহৎ সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের! সাধারণ মানুষের কী হতে পারে?

একে একে লাইন দিয়ে একাধিক রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বিলগ্নীকরণের (Bank Privatisation) প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। পাশাপাশি বহু সরকারি সংস্থায় বিদেশি বিনিয়োগের দরজা খুলে দিয়েছে কেন্দ্র। যে বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন স্তরে দেশজুড়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

Advertisement

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোতে বেসরকারি বিনিয়োগের পথ প্রশস্ত করার জন্য নরেন্দ্র মোদি সরকার আগেই ব্যাংকিং রেগুলেশন অ্যাক্ট সংশোধন করে তার বার্তা দিয়েছিল। এক সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকার (Central Govt.) দুটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের বেসরকারিকরণের কাজ দ্রুত শেষ করে ফেলতে চায়। ইতিমধ্যেই তার জন্য প্রয়োজনীয় সরকারি প্রক্রিয়া শুরু করে দেওয়া হয়েছে।

সংসদের আসন্ন বাদল অধিবেশনে এই বিষয়ে কেন্দ্র একটি বিল পাশ করাতে চায়। দুটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংককে (Nationalised) প্রাথমিকভাবে বিলগ্নীকরণ (Bank Privatisation) এর তালিকাভুক্ত করা হয়ে গিয়েছে।
দেশজুড়ে বাজারের ওপর সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। মধ্যবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্ত, গরিব মানুষের পক্ষে জীবন যাপন করাটাই কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Advertisement

বাজারের প্রয়োজনীয় প্রতিটা জিনিসের দর আকাশছোঁয়া। এরকম একটা পরিস্থিতিতে (Bank Privatisation) সরকারি সংস্থাগুলোতে বিদেশি বিনিয়োগ (Foreign Investment) বাড়িয়ে দেওয়ার এই সিদ্ধান্ত নিয়ে একাধিক প্রশ্ন উঠে গিয়েছে।

আরও পড়ুন,  আগামী মাস থেকে আবার বাড়ছে সমস্ত মোবাইল ও টিভি রিচার্জের খরচ

গতবছর অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানিয়েছিলেন, কেন্দ্র কয়েকটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের বেসরকারিকরণের প্রক্রিয়া (Bank Privatisation) শুরু করে দিতে চায়। সেই কারণেই 1970 এবং 1980 সালের ব্যাংক জাতীয়করণের দুটি আইন এবং 1949 এর ব্যাংক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন করা হবে।

EK24 News

জ্বালানীর দাম কেন্দ্র কমানোর পর, এবার ভ্যাট কমাচ্ছে রাজ্যগুলি, হু হু করে দাম কমবে

এবার কোন দুটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক বেসরকারিকরণের তালিকাভুক্ত করা হয়েছে, সেই বিষয়ে কেন্দ্রের তরফ থেকে কিছু জানা যায়নি। তবে বিভিন্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র, ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়ান ওভারসিজ ব্যাঙ্ক, সেন্ট্রাল ব্যাংকের নাম নিয়ে আলোচনা চলছে। এদের মধ্যে দুটি ব্যাংক প্রাথমিক ভাবে Bank Privatisation করা হবে।

Advertisement

সরকারের এই Bank Privatisation প্রক্রিয়া কি আপনি সমর্থন করেন? নিচে কমেন্ট করে আপনার মুল্যবান মতামত জানাতে পারেন।
Written by Rajib Ghosh

 স্বল্প বিনিয়োগে ব্যাপক লাভ! আজই শুরু করুন এই চাষাবাদ, মাসে লাখ টাকা আয় করুন

Advertisement
Advertisement
One thought on “Bank Privatisation – চলতি বছরে আরো দুটি জনপ্রিয় সরকারী ব্যাংক বেসরকারী হয়ে যাচ্ছে, দেখুন কোন কোন ব্যাংক।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement