Advertisement
Convocation order for school teacher (স্কুল শিক্ষকদের জরুরী নির্দেশ)
Advertisement

অতিমারী আবহের পর শেষ হতে চলেছে আরেকটি শিক্ষা বর্ষ। স্কুল শিক্ষকদের রেজাল্ট তৈরি থেকে শুরু করে নানাবিধ কাজ রয়েছে। আর এরই মধ্যে আরও একটি নির্দেশিকা এলো।

Advertisement

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন উৎসব বাতিল হয়ে গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে অবশ্য বিভিন্ন মহল থেকে বিশ্বভারতীর উপাচার্যের দিকে আঙ্গুল তোলা হচ্ছে। যদিও সেটা অন্য বিষয়। কিন্তু এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের এই সমাবর্তন উৎসবের গরিমাকে একেবারে বিদ্যালয়স্তরে নিয়ে আসার জন্য পদক্ষেপ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। সমাবর্তন উৎসব শুধুমাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের গণ্ডির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না। স্কুলের পঞ্চম শ্রেণী থেকেই এই সমাবর্তন উৎসব শুরু হয়ে গিয়ে চলবে একেবারে কলেজের তৃতীয় বর্ষ পর্যন্ত। বিষয়টা সম্বন্ধে কি জানা যাচ্ছে?

Advertisement

স্কুল শিক্ষকদের সমাবর্তন অনুষ্ঠান

সমাবর্তন উৎসবের মাধ্যমে ছাত্র- শিক্ষকের মধ্যে একটা সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। যার প্রভাব সামগ্রিক শিক্ষা ব্যবস্থার উপরে পড়তে দেখা যায়। তাই মধ্যশিক্ষা পর্ষদের পক্ষ থেকে এবার সমস্ত স্কুলে চিঠি পাঠিয়ে জানানো হয়েছে, স্কুলের প্রতিটি ক্লাসের জন্য প্রতিবছর সমাবর্তন উৎসবের আয়োজন করতে হবে এবং এটা বাধ্যতামূলক। কলেজের বিভিন্ন বর্ষেও এই সমাবর্তন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

মধ্যশিক্ষা পর্ষদ সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে স্কুল শিক্ষকদের তত্ত্বাবধায়নে স্কুলে সমাবর্তনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যে সমস্ত স্কুলে একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণী রয়েছে সেখানেও চিঠি পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। আগামী বছর থেকে প্রত্যেক জানুয়ারি মাসে প্রতিটি স্কুলকে এই সমাবর্তন উৎসবের আয়োজন করতে হবে। প্রত্যেক ক্লাসে উত্তীর্ণ হওয়া ছাত্রছাত্রীদের হাতে স্কুল শিক্ষকেরা বিদ্যালয়ের তরফে পড়ুয়াদের উপহার তুলে দেবেন।

আবারও 2 টি ব্যাংককে মোটা টাকা জরিমানা করল RBI. আপনিও কি এই ব্যাংকের গ্রাহক? জেনে নিন।

কলেজগুলির ক্ষেত্রেও একই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে যারা উত্তীর্ণ হয়েছে তাদের নিয়ে সমাবর্তন উৎসবের আয়োজন করতে হবে। রাজ্যের সমস্ত সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলির পক্ষ থেকে তাদের অধীনস্থ সমস্ত কলেজে এই মর্মে চিঠি পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এই সমাবর্তন উৎসবের দিন ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে বিদ্যালয়ের ইতিহাস সহ তথ্য তুলে ধরতে হবে।

EK24 News

জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে স্কুল শিক্ষকদের এই সমাবর্তন অনুষ্ঠান করতে হবে। পাশাপাশি রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য যে পোশাক, বই, জুতো, মিড ডে মিল এর মত সরকারি সুবিধা দেওয়ার বন্দোবস্ত করা হয়েছে সেই বিষয়টিও জানাতে হবে।

Advertisement

সুপ্রিম কোর্টে শুনানির মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গে 7% ডিএ নিয়ে নয়া খবর।

পঞ্চম শ্রেণী থেকে কলেজের তৃতীয় বর্ষ পর্যন্ত এই সমাবর্তন উৎসবের আয়োজনের সিদ্ধান্তকে শিক্ষা মহলের প্রায় প্রত্যেকেই স্বাগত জানিয়েছেন। রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে কেন্দ্রীয় স্কুল গুলির সাথে, যে বৈষম্য ছিল সেটি অনেকটাই দূর হবে বলে মনে করা হচ্ছে।
Written by Rajib Ghosh.

Advertisement
Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement