Advertisement
দুয়ারে সরকার প্রকল্পে চাকরী
Advertisement

দুয়ারে সরকার থেকে এবার রাজ্যের শিক্ষিত বেকারদের মিলবে অতি সহজেই চাকরির সুযোগ।

পশ্চিমবঙ্গে দুয়ারে সরকার প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের রায় ১০ কোটি জনগন প্রত্যক্ষ ভাবে সরকারী প্রকল্পের সুবিধা নিতে পেরেছে। আর রাজ্যের হাজার হাজার ক্যাম্প থেকেই এবার বেকার সমস্যা নির্মূল অভিযানের ডাক দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এবার ক্যাম্প থেকেই মিলবে চাকরির সুযোগ।

Advertisement

মহামারীর সময়ে চালু হয় দুয়ারে সরকার প্রকল্প। আর তারপর এই প্রকল্প অতি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এই প্রকল্পের সাথে ১৩ টি প্রকল্প জুড়ে দেওয়া হয়েছে। যেখানে রেশন কার্ড, স্বাস্থ্যসাথী, লক্ষীর ভান্ডার, ব্যাংক একাউন্ট, স্কলারশীপ, জাতিগত সনদ পত্র প্রভৃতি পরিষেবা নিজের দুয়ার থেকেই পেয়ে যাচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দারা।

আর এবার এই দুয়ারে সরকার ক্যাম্প থেকে মিলবে চাকরী। প্রসঙ্গত, কোভিড আবহে বিভিন্ন সংস্থা ও বেসরকারি অফিসগুলি থেকে প্রচুর পরিমাণে কর্মী ছাঁটাইও হয়েছে। অনলাইন পদ্ধতি ব্যবহার করার ফলে কল-কারখানা, অফিস-আদালত ও অন্যান্য দপ্তরে কর্মী সংখ্যা কমেছে অনেক। এছাড়া সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তি ও বেরোনো কমে গেছে প্রচুর পরিমাণে। আর অন্যদিকে প্রতিবছরই বেকার সমস্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ফলে কর্মপিপাসু মানুষের সংখ্যা যে বেড়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

Advertisement

এমন প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ সরকার যুবসমাজকে সাহায্য করার জন্য একটা নতুন প্রকল্প নিয়ে এসেছে। সাধারণ মানুষের সহায়তার জন্য চালু হয়েছে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প। এই দুয়ারে সরকার ক্যাম্প এর মাধ্যমে সুযোগ সুবিধা যুক্ত সরকারি প্রকল্পের সমস্ত কিছু সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। আর এবারে দুয়ারে সরকার প্রকল্পের নতুন একটি সংযোজন হলো চাকরি। চাকরির জন্য আবেদন করতে পারবেন এই দুয়ারে সরকার ক্যাম্প থেকেই।

বাংলায় আর বেকার থাকবে না, 100 Days Work Scheme ও নতুন চাকরী নিয়ে বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর।

রাজ্য সরকারের এই নতুন প্রকল্পের নাম হচ্ছে দুয়ারে সরকার কর্ম দিশা প্রকল্প। প্রকল্পটি আনা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের কারিগরি শিক্ষা দপ্তর এর পক্ষ থেকে। আসুন জেনে নেই কিভাবে আপনি আপনার চাকরির জন্য দুয়ারে সরকার কর্ম দিশা প্রকল্পের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

EK24 News

কর্ম দিশা প্রকল্প কি?
পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষ থেকে এই দুয়ারে সরকার কর্ম দিশা প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছে বেকার যুবক-যুবতীদের কথা ভেবে। এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য হল প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে যোগ্য প্রার্থীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। এবং উপযুক্ত ট্রেনিং দিয়ে তাদের দক্ষ করে তোলা।

Advertisement

এই উদ্দেশ্যে বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে রাজ্যের প্রকল্পের মেল বন্ধন ঘটিয়ে দুয়ারে সরকার এর মাধ্যমে বেকার যুবক-যুবতীদের ট্রেনিং প্রদান করা হবে। ট্রেনিং গুলি তারা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে নিতে পারবেন। শুধু তাই নয় ট্রেনিং চলাকালীন সময়ে তাদেরকে মাসিক কিছু ভাতা ও দেওয়া হবে। ট্রেনিং শেষে বেকার যুবক যুবতীরা তাদের নিজস্ব যোগ্যতা এবং ট্রেডের উপরে চাকরির আবেদন করতে পারবেন।

পশ্চিমবঙ্গের কারিগরি শিক্ষা দপ্তরের থেকে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী জানানো হয়েছে বর্তমানে ১০ হাজার বেকার যুবক যুবতীকে ট্রেনিং দেওয়া হবে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প থেকে। এই ট্রেনিং শেষ হওয়ার পরে তাদের প্রত্যেককে কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেওয়া হবে। পরবর্তীকালে এই সংখ্যা ধীরে ধীরে বাড়িয়ে ৩০ হাজার পর্যন্ত করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

কারা এই প্রকল্পের অধীনে আবেদন করতে পারবেন?
১) প্রকল্পে আবেদনের ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
২) আবেদনকারীর বয়স অবশ্যই ১৮ বছর কিংবা তার বেশি হতে হবে।

এই প্রকল্পের অধীনে কি কি বিষয়ে ট্রেনিং নিতে পারবেন যুবক-যুবতীরা?
এই সকল বেসরকারি সংস্থাগুলির তরফে রাজ্যের যুবক-যুবতীদের Agriculture, Automobile, Beauty and Wellness, Capital Goods, Council owned courses, Construction, Domestic worker, Electronics and hardware, Food processing, Furniture and fittings, Gems and Jewellery, Green Jobs, Handcrafts and Carpets, Healthcare, Banking, Financial services and Insurance, Hydrocarbons, Apparel, made-ups and home furnishing, Aerospace and Aviation সহ আরও ভিন্ন ভিন্ন বিষয়ে ট্রেনিং দেওয়া হবে।

Advertisement

আবেদনের পদ্ধতি
এই প্রকল্পের অধীনে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করার ক্ষেত্রে আপনাদের প্রথমেই ‘’আমার কর্মদিশা’’ অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে গুগল প্লে-স্টোর থেকে। এরপর ধাপে ধাপে কাজগুলি করতে হবে।

বাংলা শস্য বীমা – দারুন সুখবর দিলো সরকার, আজই এই সুবিধা গ্রহণ করুন।

১. অ্যাপটি খোলার পর প্রথমেই আপনাকে আপনার বৈধ মোবাইল নম্বর এবং জন্মের তারিখ সঠিকভাবে লিখতে হবে। এরপর Get OTP নামক যে অপশনটি রয়েছে সেটিতে ক্লিক করতে হবে।
২. এরপর আপনার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরটিতে একটি OTP আসবে এবং অ্যাপে নতুন একটি পেজ আপনার সামনে আসবে যাতে আপনাকে এই OTP টি সঠিকভাবে লিখে ভেরিফিকেশনের প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করতে হবে।

৩. ভেরিফিকেশনের প্রক্রিয়াটি সঠিকভাবে সম্পন্ন হলে আপনার সামনে আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ফর্মটি আসবে।
৪. এরপর ওই ফর্মে আপনার নাম, শিক্ষাগত যোগ্যতা, গ্রামের নাম, জেলার নাম, বৈধ ইমেইল অ্যাড্রেস, জন্ম তারিখ, মোবাইল নম্বর সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করে সেভ অপশনে ক্লিক করুন।

Advertisement

৫. তারপর আপনার সামনে যে পেজটি আসবে তাতে আপনার সামনে বিভিন্ন ধরনের কাজের ছবি এবং বিবরণ আসবে তার মধ্যে থেকে আপনি কি ধরনের কাজ চাইছেন তা বেছে নিতে হবে।

. এরপর যে নতুন পেজটি আসবে তাতে আপনার সম্পর্কে আরও জানতে চাওয়া হবে। পরবর্তী ধাপে যাওয়ার ক্ষেত্রে এই পেজের নীচে ‘শুরু করুন’ অপশনটিতে আপনাকে ক্লিক করতে হবে।
. এরপর আপনার সামনে কতগুলি প্রশ্ন আসবে এবং আপনাকে আপনার পছন্দ অনুযায়ী এই প্রশ্নগুলোর উত্তর দিতে হবে।

. সমস্ত প্রশ্নের সঠিক উত্তর দেওয়ার পর আপনার সামনে যে পেজটি আসবে তাতে আপনার ফলাফল সম্পর্কে জানানো হবে এবং ফলাফল দেখার জন্য আপনাকে ‘এখানে ক্লিক করুন’ অপশনটিতে ক্লিক করে হ্যাঁ অপশনে ক্লিক করতে হবে।
. এর পরের পেজে আপনি আপনার শিক্ষগত যোগ্যতা এবং উক্ত সমীক্ষাটি অনুসারে ফলাফল দেখতে পারবেন। এই ফলাফলে থাকা কাজের নামগুলিতে ক্লিক করলেই আপনারা কোন কোন ক্ষেত্রে কাজ পাবেন তা জানতে পারবেন।

Advertisement

রাজ্যের এই 1টি Scheme এ আবেদন করলেই মিলবে নিজের এলাকায় চাকরি।

এই ধরনের খবরের সন্ধান পেতে আমাদের সাথে থাকুন। নিজেকে স্বাবলম্বী করে তোলার ভালো ভালো পথের সন্ধান প্রতিনিয়ত আমরাই নিয়ে আসি আপনাদের সুবিধার্থে। ধন্যবাদ।
Written By Mukta Barai.

Advertisement
Advertisement
3 thoughts on “দুয়ারে সরকার ক্যাম্পেই হবে সরকারি চাকরি। আবেদন করবেন কিভাবে?”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement