Personal Loan – টাকার দরকার হলে কারোর কাছে হাত পাতবেন না। আধার কার্ড থাকতে কোন চিন্তাই নেই।

এমন তো অনেক সময়েই হয় যে আমাদের এমার্জেন্সি টাকার (Personal Loan) প্রয়োজন, অথচ হাতের কাছে টাকা নেই। সে ক্ষেত্রে কি করার? কারোর কাছে হাত পাতলেও তো সহজে টাকা মিলবে না। এই পরিস্থিতিতে আমরা অনেকেই ব্যাংকে লোন নিতে যাই। ব্যাংকে লোন (Bank Loan) নেওয়া সুবিধাজনক হলেও এর প্রক্রিয়াকরণের জন্যেই বেশি হয়রানি হতে হয় মানুষকে।

Advertisement

Instant Personal Loan Online Apply.

গতানুগতিক সিস্টেম ও চলতি ব্যাংকিং নিয়ম অনুযায়ী হাজার হাজার প্রশ্নের উত্তর, সমস্ত ডকুমেন্টস, আয়ের প্রমান, সম্পত্তির প্রমান, গ্যারান্টার, বাড়িতে ভেরিফিকেশন, কর্মস্থলে ভেরিফিকেশন এই সব করতে করতে আর ঠিক সময় লোন (Personal Loan) পাওয়া যায় না। কিন্তু এখন থেকে আর এই চিন্তা নেই। যে কোনো হঠাৎ প্রয়োজনে আবেদন করলেই মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যে স্যাংশন হয়ে যাবে লোন।

Advertisement

এমনকি এই জন্য আপনাকে ব্যাংকেও যেতে হবে না ঘরে বসেই অনলাইনে (Online Personal Loan) এলোন আপনি পেয়ে যাবেন নিজের একাউন্টে। তার জন্য লাগবে এক বিশেষ নথি। আর এই নথি থাকলে আপনার ঋণ পাওয়া অনেকটাই সুবিধাজনক হয়ে যেতে চলেছে। কি সেই নথি? কিভাবে আবেদন করবেন এই এমার্জেন্সি লোনের জন্য? দেখে নিন পুরোটা।

What Is Instant Personal Loan?

ইনস্ট্যান্ট পার্সোনাল লোন হলো ব্যাংকিং ব্যবস্থার একটি উল্লেখযোগ্য সুবিধা। বর্ধমান যুগে যেখানে বেশিরভাগ কাজই ডিজিটালি হয়, সেখানে লোন নিতে ব্যাংকে দাঁড়িয়ে লাইন দেওয়া অনেক ঝক্কির ব্যাপার। তাই গ্রাহকদের সুবিধার জন্য ব্যাংক গুলি চালু করেছে এই Personal Loan এর সুবিধা। এর মাধ্যমে আপনি ঘরে বসেই অনলাইনে লোন পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারেন।

এই প্রক্রিয়ায় তেমন কোন ডকুমেন্টেশন করতে হয় না। বা ব্যাংক গুলি বেশি যাচাই বাছাইও করেনা। ফলে দ্রুত Personal Loan পাওয়া যায়। দেশের বেশিরভাগ প্রাইভেট এবং পাবলিক সেক্টর ব্যাংক বর্তমানে তার গ্রাহকদের ইনস্ট্যান্ট পার্সোনাল লোনের সুবিধা দেয়। কোন ব্যাংকে সুদের হার কম? নিতে গেলে কি যোগ্যতা লাগে? কিভাবে আবেদন করতে হবে? সেই সব জেনে নেব।

Advertisement

SBI Personal Loan

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া তার গ্রাহকদের ২৫ হাজার টাকা থেকে 15 লক্ষ টাকা পর্যন্ত পার্সোনাল লোন দেয়। লোনের উপর সুদের হার কাটা হয় বার্ষিক ১০.১০ শতাংশ থেকে ১৪.৬০ শতাংশ পর্যন্ত হারে। গ্ৰাহকের অবশ্যই 18 বছরের বেশি বয়স হতে হয়। সঙ্গে মাসিক ১৫ হাজার টাকা ন্যূনতম বেতন থাকতে হয়।

HDFC Bank Personal Loan

এইচডিএফসি ব্যাংক সর্বোচ্চ ৪০ লাখ টাকা পর্যন্ত পার্সোনাল লোন প্রদান করে তার গ্রাহকদের। সুদ দিতে হয় ১১ শতাংশ হারে। ১৮ বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তি এই লোন পাবেন। সঙ্গে মাসিক ২৫ হাজার টাকা বেতন থাকতে হবে। তবেই সকলকে এই পার্সোনাল লোন দেওয়া হবে।

Bajaj Finserv Personal Loan

বাজাজ ফিনসার্ভ ব্যাংকিং আপনি সর্বোচ্চ ২৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যক্তিগত ঋণ পেতে পারেন। লোনের জন্য বার্ষিক ১৩ শতাংশ হারে সুদ দিতে হয় ঋণ গ্রহীতাকে। ১৮ বছরের বেশি বয়স যাদের এবং সঙ্গে মাসিক অন্তত ২২ হাজার টাকা বেতন আছে সেই সব ব্যক্তিরা বাজাজ ফিনসার্ভ থেকে এই ব্যক্তিগত লোন পেতে পারেন।

ICICI Bank Personal Loan

ICICI ব্যাংক পার্সোনাল লোন ২৩ বছর বয়সী থেকে ৫৮ বছর বয়সী ব্যক্তিরা পেতে পারেন। মাসিক অন্তত ৩০ হাজার টাকা বেতন হলেই আইসিআইসিআই পার্সোনাল লোন পাওয়া যায়। সর্বনিম্ন ৫০০০০ থেকে সর্বোচ্চ ২৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পার্সোনাল লোন দিয়ে থাকে ব্যাংক। লোনের জন্য সুদ দিতে হয় ১০.৫০ শতাংশ হারে।

Kotak Mahindra Bank Personal Loan

50000 থেকে 25 লাখ পর্যন্ত ঋনের সুবিধা মেলে এই ব্যাংকে। বার্ষিক ১০.৯৯ শতাংশ হারে ব্যাংক সুদ কাটে লোনের ওপর। লোন পেতে গেলে একজন ব্যক্তির অবশ্যই ১৮ বছরের বেশি বয়স হতে হয়। এর সঙ্গে থাকতে হয় প্রতি মাসে ৩০ হাজার টাকা স্থায়ী বেতন।

Personal Loan Apply Eligibility Criteria

১. ব্যাংক থেকে ইনস্ট্যান্ট পার্সোনাল লোন নিতে গেলে প্রথমে সেই গ্রাহকের বয়স হতে হবে ২১ বছরের বেশি কিন্তু ৬০ বছরের কম।
২. লোনের আবেদন করার জন্য ব্যাংক একাউন্টের সঙ্গে আধার নম্বর সংযুক্ত থাকা আবশ্যক।
৩. Personal Loan নেওয়া গ্রাহকের আগে কোনদিন বকেয়া থাকা চলবে না ব্যাংকে।
৪. এই লোন নেওয়ার জন্য ঋণগ্রহীতার সিবিল স্কোর ৭৫০ এর বেশি হতে হবে।

Personal Loan Apply Documents

১. Aadhaar Card, Voter ID Card, Driving License, Passport.
২. ঠিকানার প্রমাণ হিসেবে ভোটার বা আধার কার্ড।
৩. গত তিন মাসের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট।
৪. শেষ মাসের বেতনের স্লিপ। না থাকলে ফর্ম ১৬ ফিলাপ করে দিতে হবে।

ব্যাংক ঋণ তথা Bank Loan, Personal Loan

Personal Loan Online Apply Process

১. নির্দিষ্ট ব্যাংকের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যান।
২. মোবাইল নম্বর বসিয়ে Send OTP ক্লিক করুন।
৩. ওটিপি বসিয়ে Log In বাটনে ক্লিক করুন।
৪. লগ ইন হওয়ার পর নতুন পেজ খুলবে। এখানে তালিকা থেকে ‘Personal Loan’ অপশন বাছাই করুন।

হটাৎ টাকার দরকার হলে, কেন্দ্রের এই প্রকল্পে আবেদন করুন। রিজার্ভ ব্যাংকের নিয়ম মানলেই একাউন্টে টাকা ঢুকবে।

৫. কত গুলি সাব ক্যাটাগরি আসবে যেমন হোম লোন, কার লোন, এডুকেশন লোন ইত্যাদি।
৬. আপনার প্রয়োজন মত একটির ওপর ক্লিক করুন।
৭. আপনার নাম, ঠিকানা, আধার ও প্যান নম্বর, ব্যাংক একাউন্ট নম্বর সহ আরো বেশ কিছু তথ্য দিয়ে আবেদন পত্র পূরণ করুন। কত টাকা ঋণ নিতে চান সেটাও উল্লেখ করতে হবে।
৮. Submit বাটনে ক্লিক করুন।
৯. পরের পেজ খুলে যাবে। এখানে আপনার আধার ও প্যান কার্ডের ডিটেলস যাচাই করণ শেষ হওয়া পর্যন্ত ধৈর্য ধরুন। আপনি যদি যোগ্য হন, প্রক্রিয়াকরণ সম্পন্ন হলেই ফোনে মেসেজ যাবে লোন স্যাংশন হবার।Written by Nabadip Saha.

স্টেট ব্যাংক গ্রাহকরা মোটা টাকা পাবেন। গ্যারান্টি ছাড়াই দেওয়া হবে!

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment