ফ্রী রেশন নিচ্ছেন? এবার থেকে নিজের বাড়ি, গাড়ি থাকলে রেশন পাবেন না, সরকারের নতুন নিয়ম জেনে নিন।

বিনামূল্যে বা ফ্রী রেশনের মাধ্যমে খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার। আর সেই পরিষেবা থেকে উপকৃত হচ্ছেন দেশজুড়ে বহু মানুষ। কেন্দ্রীয় সরকার এই বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার সময়সীমা বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর ২০২৩ পর্যন্ত করে দিয়েছে। বিশেষ করে করোনা সংক্রমনের সময় লকডাউন চলাকালীন এই ফ্রী রেশন ব্যবস্থার মাধ্যমে দেশের একটা বিরাট সংখ্যক মানুষ উপকৃত হয়েছেন। এরপরে ফ্রী রেশনের এই মেয়াদ আরো বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

নতুন নিয়মে কারা পাবেন না ফ্রী রেশন?

কিন্তু বিনামূল্যে রেশন পরিষেবার (Free Ration System) দিকে একটু নজর দিলেই দেখা যাবে, বহু এমন মানুষ আছেন, যারা এই ফ্রী রেশন পরিষেবা পাওয়ার যোগ্য নন। তবুও তারা, সেই সমস্ত রেশন কার্ড হোল্ডাররা এই পরিষেবা নিয়ে চলেছেন। সরকার এই খাতে লক্ষ লক্ষ কোটি কোটি টাকা খরচ করেছে। আর যে সমস্ত রেশন কার্ড হোল্ডার এই বিনামূল্যে রেশন পরিষেবা পাওয়ার যোগ্য নন, অথচ ফ্রী রেশন নিয়ে চলেছেন, তাদের এই ভুলের জন্য পরিবারকেও ভুগতে হতে পারে।

Advertisement

এবার দেখে নেওয়া যাক, কারা এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হওয়ার যোগ্য নন:
১) যাদের ফোর হুইলার বা চার চাকার গাড়ি রয়েছে, তারা কখনোই বিনামূল্যে রেশন প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন না। যদি তারা ইতিমধ্যেই বিনামূল্য রেশন পরিষেবা নিয়ে থাকেন, তাহলে ভবিষ্যতে সমস্যায় পড়তে চলেছেন।
২) যাদের নিজের টাকায় ১০০ বর্গফুট বা তার উপরে বাড়ি বা ফ্ল্যাট (Flat) রয়েছে, তারা সরকারের এই বিনামূল্য রেশন পরিষেবা নিতে পারবেন না।

আরও পড়ুন, গরীব মানুষের জনপ্রিয় প্রকল্প, মাত্র একবার টাকা জমিয়ে সারাজীবন মাসে মাসে

৩) যারা গ্রামের বাসিন্দা বা গ্রামাঞ্চলে বসবাস করেন, তাদের বছরে আয় যদি ২ লক্ষ টাকা বা তার বেশি হয় তাহলে তারাও বিনামূল্যে রেশন পরিষেবা (Free Ration System) পেতে পারেন না।
৪) যাদের কোনো ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র যেমন (বন্দুক, রিভলবার) এর লাইসেন্স (Gun License) রয়েছে, তারা কোনোভাবেই বিনামূল্যে রেশন পরিষেবা পাবেন না।

Advertisement

চলতি মাসে রেশনের নিয়মে বদল, কার্ড পিছু কত কিলো চাল ও গম পাবেন কমলো না বাড়ল?

৫) শহরে বা গ্রামাঞ্চলে যেখানেই থাকুক না কেন, যদি যথেষ্ট ভালো পরিমাণে আয় করেন, তাহলে তারা কোনো মতেই বিনামূল্যে রেশন পরিষেবায় অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন না। নতুন এই নিয়ম আগামী অর্থ বছর থেকে চালু হবে। আর এতেই বেজায় চটেছে সাধারন মানুষ। এই ব্যাপারে আপনার মতামত নিচে কমেন্ট করবেন।
যদিও কেন্দ্র সরকার ফ্রী রেশন এর এই নতুন নিয়ম করার কারন হিসেবে জানিয়েছে, এই পরিষেবার মাধ্যমে দেশের সরকার আরও বেশি সংখ্যক মানুষ কে আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া শ্রেণী, গরিব মানুষদের মেশনে খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করতে পারবে। যাতে তারা উপকৃত হতে পারেন।
সংবাদসুত্র News18 Bangla
Written by Rajib Ghosh.

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment