আগের মত মিড ডে মিল এর চাল দেবেনা সরকার, বদলে গেল নিয়ম।

মিড ডে মিল খেলে আর খেতে হবে না হরলিক্স-কম্প্ল্যান।

কেন্দ্র এবং রাজ্য উভয়ের সক্রিয় প্রচেষ্টায় বিদ্যালয়গুলি এখন হয়েছে স্বয়ং সম্পূর্ণ। মিলছে মিড ডে মিল, ব্যাগ, জুতো, আধুনিক মানের স্কুল ড্রেস, সাইকেল ইত্যাদি। আর শিক্ষাকে ফ্রি করে দেওয়া হয়েছে তো অনেক আগে থেকেই। সাথে শুধু খিচুড়িই নয়, এখন মিড ডে মিলে মিলছে দুপুরের রকমারি সুস্বাদু খাবার একেবারে রুটিন করে।

Advertisement

তবে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত বরাদ্দ 4.97 টাকা এবং ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত মেলে মাত্র 7.45 টাকা। এই কম বরাদ্দে বেড়ে যাওয়া দ্রব্যমূল্যের বাজারে রুটিনে থাকছে নিয়ম করে গোটা ডিম, বেশি দামের সবজি, সয়াবিন। উপরি গ্যাসের দামও প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। এই বিষয়ে শিক্ষক মহাশয়দের কুর্নিশ জানাতেই হয়।

Advertisement

শিশুদের সঠিক সময়ে পুষ্টি খুবই দরকার। কারণ এই বয়স হল বেড়ে ওঠার বয়স। বুদ্ধির বিকাশের এক বিশেষ সময়। রাজ্যের বিদ্যালয়গুলিতে শিক্ষার মান উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। সিলেবাসের ক্ষেত্রেও এসেছে আমূল পরিবর্তন। এবারে শিশুদের মিড ডে মিলের চালের ক্ষেত্রেও আনা হচ্ছে অমূল পরিবর্তন যা এক নতুন দিগন্তের সন্ধান দিচ্ছে।

সুষম খাবারের অভাবে দেখা দেয় অপুষ্টি। ফলে শিশুদের মানসিক ও শারীরিক বিকাশ ব্যাহত হয়। তাই এবারে আর শিশুদের নিয়ে কোনো চিন্তা করতে হবে না। কৃষি গবেষণায় দেশে এসেছে অমূল পরিবর্তন। আবিষ্কার হয়েছে নতুন নতুন চাষ প্রক্রিয়া আর নতুন প্রজাতির ফসল। সেই আবিষ্কারের সুফলকে কাজে লাগাচ্ছে রাজ্য সরকার।

স্কলারশিপ দিচ্ছে ষ্টেট ব্যাংক, আবেদন করলেই পাবে 15 হাজার টাকা।

শিশুদের অপুষ্টি জনিত সমস্যাকে নির্মূল করার লক্ষ্যে মিড ডে মিল প্রকল্পে আনা হচ্ছে বদল। আগে নতুন মাস শুরুর আগেই স্থানীয় প্রশাসনিক দপ্তরের গোডাউন থেকে স্কুলে পাঠিয়ে দেওয়া হত মাসের বরাদ্দ অনুযায়ী চাল। কিন্তু এখন আর তা করা হবে না।

Advertisement

এবারে জানা গেছে যে, সমস্ত বিদ্যালয়ে এবারে চালের সাথে মেশানো হবে অন্য এক ধরণের আলাদা চাল। তো কি সেই চাল। এই নতুন ধরণের চালের পুষ্টিগুণ সাধারণ চালের থেকে বহুগুণ বেশি। এর মধ্যে থাকবে ভিটামিন B12, Folic Acid আর আয়রণ যা শিশুদের জন্য খুবই প্রয়োজন।

এই চাল এখন হয়ে যাবে পুষ্টিকর চাল অর্থাৎ ফর্টিফায়েড চাল। আসুন জেনে নেই যে কিভাবে তৈরী হবে এই চাল? প্রতি 50 কেজি চালের বস্তায় মেশানো হবে মাত্র 500 গ্রাম আধুনিক গুণ সম্পন্ন চাল। হ্যা, আপনি ঠিকই শুনছেন। মাত্র 500 গ্রামেই এই পরিবর্তন হবে। সম্ভবত Iron Tablet ও ভিটামিনের কাজ হবে এই চালের গরম ভাত দিয়ে মিড ডে মিল খেলেই।

স্কুল শিক্ষকেরা প্রাইভেট পড়াতে গিয়ে ধরা পড়লে কি শাস্তি হবে, দেখুন।

এই বিষয়ে পড়ুয়াদের অভিভাবকদের সচেতন করতে বলা হচ্ছে বিদ্যালয়গুলিকে। যাতে এই কারনে গুজব না ছড়ায়। সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকদের মাধ্যমে নির্দেশিকা পাঠানো হচ্ছে প্রত্যেক বিদ্যালয়ে। আপাতত পাইলট প্রজেক্ট হিসাবে নদিয়া জেলাকে বেছে নেওয়া হয়েছে। এই নিয়ে জাতে কোন ভুল ধারণা না ছড়ায়, সেদিকে গুরুত্ব দিতে বলা হচ্ছে।

এমনই আপডেট পেতে আমাদের সাথে থাকুন। শিক্ষা ও চাকরী সংক্রান্ত আপডেট আমরাই নির্ভুলভাবে উপস্থাপনের চেষ্টা করে থাকি। আপনার বক্তব্য থাকলে নিচে কমেন্ট করতে ভুলবেন না। ভালো লাগলে শেয়ার করে সবাইকে জানার সুযোগ করে দিন।
Written by Mukta Barai.

পুজোর কেনাকাটায় বাম্পার Offer 80%, কোন সাইটে কবে থেকে সেল শুরু হচ্ছে, দেখুন।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment