Pension Rules – পেনশন নিয়মের বড় বদল, চাকরি শেষ হলেই পেনশন নয়, পেনশন চালু করতে কাঠ খড় পোড়াতে হবে

কয়েক বছর আগেও যখন অনলাইন ব্যবস্থা চালু হয়নি, তখনও চাকরি শেষের পর পেনশন চালু করতে Pension Rules বা পেনশনের নিয়ম মেনে সব ফাইল রেডি করতে বছর লেগে যেত। কিন্তু IFMS ও EPFO Online portal, Pension Portal চালু হওয়ার পর থেকে চাকরী সেহ হতেই অটোমেটিক পেনশন চালু হয়ে যায়। এতে বৃদ্ধ বয়সে অতটা ঝামেলা পোহাতে হয়না।

Advertisement

আর বছরে একবার লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিলেই ঝামেলা শেষ, আর সেক্ষেত্রে চালু হয়েছে, অনলাইনে বাড়িতে বসে জীবন প্রমান দাখিল করার নিয়ম। কিন্তু এবার পেনশন চালু, গ্রাচুইটি ও প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা পেতে হলে মানতে হবে New Pension Rules 2023. এই নিয়মে কি বদল আসতে চলেছে, জানা গেছে। New Pension Rules কি চালু হতে চলেছে, জেনে নিন।

Advertisement

Pension Rules 2023

New Pension Rules নিয়ে অবশেষে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে প্রভিডেন্ট ফান্ড প্রকল্প (পিএফ) সংক্রান্ত নীতি বদলাতে সক্রিয় হল কেন্দ্র। কর্মচারী ভবিষ্যনিধি তহবিল সংস্থার (EPFO) এর তরফে গত শুক্রবার এই সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের পেনশন প্রকল্প বা EPS – A (Employees Pension Scheme New Pension Rules) সংক্রান্ত নিয়ম বদলের কথা।

কর্মচারী ভবিষ্যনিধি আইনে (EPFO New Pension Rules 2023) সরকারি কর্মীরা প্রভিডেন্ট ফান্ডে তাঁদের মূল বেতনের ১২ শতাংশ টাকা জমা করে থাকেন প্রতি মাসে। পাশাপাশি, নিয়োগকারী সংস্থার তরফেও কর্মীদের পিএফ তহবিলে সম পরিমাণ টাকার অংশ, অর্থাৎ বেতনের ১২ শতাংশই জমা দেওয়া হয়। তবে GPF এর ক্ষেত্রে সংস্থা কোনও কন্ট্রিবিউট করে না।

পেনশন আইনে গত ১৯৯৫ সালে পেনশন প্রকল্প চালু (Pension Scheme 1995) করা হয়েছিল। তখন যাঁদের মূল বেতন ৬,৫০০ টাকা বা তার কম, তাঁদের বেতনের যে ১২ শতাংশ অর্থ পিএফে জমা পড়ছিল, তার মধ্যে ৮.৩৩ শতাংশ নিয়ে পেনশন তহবিল তৈরি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় পরবর্তী সময়ে। তবে বর্ধিত হারে পেনশন পেতে চাওয়া কর্মীদেরকে বাড়তি অনুদান হিসেবে মূল বেতনের ৮.৩৩ শতাংশ জমা করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

Advertisement

রেশন কার্ড থাকলেই সারাজীবন বিনা পয়সায় চাল, নতুন করে নাম নিচ্ছে

তবে, ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসে সরকারি কর্মচারীদের পেনশন প্রকল্প ইপিএসে এর নিয়মে সংশোধন আনেন নরেন্দ্র মোদী৷ তারপরেই পেনশন প্রকল্পে যোগ দেওয়ার জন্য কর্মীদের মূল বেতনের ঊর্ধ্বসীমা ৬,৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৫,০০০ টাকা করা হয়। সরকারি এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে গিয়েছিলেন সরকারী কর্মচারীদের একাংশ৷
এই বিষয়টি নিয়েই অবশেষে রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। খারিজ হয়ে গেল কেন্দ্রের এতদিনের সিদ্ধান্ত।

এবারের বাজেটে সরকারী কর্মীদের ডবল বেতন বৃদ্ধির প্রস্তাব, নতুন পে কমিশন গঠন।

নতুন আইনে কি হবে?
সরকারী New Pension Rules আইন অনুযায়ী এবার থেকে EPF প্রাপ্ত কর্মীরা কর্মীরা সর্বোচ্চ ১২% কন্ট্রিবিউট করতে পারবে, এবং সরকার কেও সেই অংশ জমা দিতে হবে। কর্মীরা নুন্যতম কন্ট্রিবিউট করলে সরকার ও সেই পরিমান কন্ট্রিবিউট করবে। এদিকে আরেকটি আইন বলছে নতুন এই নিয়মে এক সংস্থা থেকে চাকরী ছেড়ে আরেক সংস্থায় গেলে তার আগের PF নম্বরই বদলী করে সি নম্বর ব্যবহার করতে হবে, এক্ষেত্রে একজন কর্মীর একটাই UAN নম্বর থাকবে, কিন্তু যাদের ইতিমধ্যে একাধিক নম্বর রয়েছে তাদের মার্জ করতে হবে। এখানেই ঝামেলা বেড়ে গেল।
Written by Antara Banerjee.

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment