Employment Exchange – উচ্চ মাধ্যমিক পাশ হলেই ঘরে বসে পাবেন 2500 টাকা। আজই এই কার্ড করে নিন।

Employment Exchange বা এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ আমাদের দেশের ও রাজ্যের সকল কর্মপ্রার্থী বা বেকারদের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে। আমাদের দেশের সব থেকে বড় সমস্যা হলো বেকারত্বের সমস্যা। এখানকার বহু শিক্ষিত ছেলে মেয়ে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের পরও তারা যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি পায় না। যারা শিক্ষিত হয়ে বেকার বসে থাকে তাদের কাছে সব থেকে বড় কষ্টের জীবন। ভারতবর্ষে এমনই এক প্রকল্প আসতে চলেছে যে প্রকল্পের মাধ্যমে বেকার যুবক যুবতীরা উপকৃত হবে।

Advertisement

Employment Exchange Benefits In India.

কি এই প্রকল্প? কারা কারা এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন? অনেক সময় ছেলে মেয়েরা উচ্চশিক্ষা লাভের পর যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি পায় না। এছাড়াও অনেক সময় পড়াশোনার সময় কোন খামতি থাকার জন্যও অনেকে চাকরি পেতে পারে না। এই সমস্ত পরিস্থিতির কথা চিন্তা করে রাজ্য এবং কেন্দ্র সরকার মিলিতভাবে একটি প্রকল্প (Government Scheme) চালু করেছে যার নাম Employment Exchange.

Advertisement

আর এই প্রকল্পের মাধ্যমে ছেলেমেয়েরা প্রতি মাসে ২৫০০ করে টাকা পাবেন। তবে এই টাকা সম্পূর্ণটা কেন্দ্র সরকার দেবে না কেন্দ্র এবং রাজ্য মিলে এই টাকাটা প্রদান করা হবে যুবক যুবতীদের। এই টাকার ৬০ শতাংশ দেবে কেন্দ্র সরকার। আর বাকি ৪০ শতাংশ দেবে সংশ্লিষ্ট রাজ্যের সরকার। Employment Exchange কেন্দ্রে নাম লেখানোর যোগ্যতা।

  • নাম লেখানোর জন্য বেকার যুবক বা যুবতীটিকে ভারতবর্ষের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • যুবক বা যুবতীকে অবশ্যই উচ্চ মাধ্যমিক পাশ হতে হবে।
  • নাম লেখানোর জন্য প্রার্থীদের বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে।
  • পারিবারিক বার্ষিক আয় ২.৫ লক্ষ টাকার মধ্যে থাকতে হবে।
  • অন্তত ২ বছর এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জের (Employment Exchange) নিজের নামটিকে অন্তর্ভুক্ত করাতে হবে।
  • এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ এর কর্মসংস্থানমুখী ট্রেনিং প্রোগ্রামে সমস্ত যুবক যুবতীরা অংশগ্রহণ করেছিল তারাই এই প্রকল্পের টাকা পাওয়ার যোগ্য।
Jaago Prakalpa (জাগো প্রকল্প)

যে সকল যুবক যুবতীরা এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ (Employment Exchange) এর মাধ্যমে কর্মসংস্থানমুখী ট্রেনিং প্রোগ্রামের (Training Program) বিভিন্ন প্রশিক্ষণ নিয়েছেন শুধুমাত্র তারাই এই স্ব-কর্মসংস্থান প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতি মাসে ২৫০০ করে টাকা পাবেন। তবে ভারতবর্ষের সমস্ত রাজ্যের বেকার যুবক যুবতীরা এই প্রকল্পর সুবিধা পাবেন না। কেবলমাত্র ঝাড়খন্ড (Jharkhand), উত্তরাখন্ড (Uttarakhand), অসম (Assam), ওড়িশা (Odisha), ছত্তিসগড় (Chhattisgarh) রাজ্যের ছেলে মেয়েরা এই প্রকল্পে নাম লেখাতে পারে।

নতুন করে স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের জন্য আবেদন করুন। এবার পাবেন লক্ষ্মীর ভান্ডার ও 5 লাখ টাকার সুবিধা।

কিন্তু এই Employment Exchange এর পশ্চিমবঙ্গের ছেলে মেয়েরাও রাজ্য সরকারের (Government Of West Bengal) এর অনুমোদিত যে কোন একটি অফিসে গিয়ে আবেদন করে নিতে পারবেন। আর আপনাদের এই জন্য ঘুরে ঘুরে বেড়ানোর কোন দরকার নেই। আপনারা অনলাইনের মাধ্যমেই এই আবেদন বাড়িতে বসে নিজের মোবাইলের মাধ্যমে করে নিতে পারবেন।
Written by Nupur Chattopadhyay.

Advertisement

জনগনের সুবিধার্থে MyScheme Portal চালু করলো সরকার। কোন সরকারী প্রকল্পটি আপনার

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment