Electricity Bill – পশ্চিমবঙ্গে 75 ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিল ফ্রি ঘোষণা। কিভাবে এই সুবিধা পাবেন?

পশ্চিমবঙ্গে ইলেকট্রিক বিল (Electricity Bill) নিয়ে এক খুবই জরুরি খবর। আসন্ন ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনের (Loksabha Election 2024) আগেই রাজ্যে সরকারের (Government Of West Bengal) এক দুর্দান্ত ঘোষণা। যা আগামী নির্বাচনের পাশা অনেকটাই পালটে দিতে পারে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত গরিব অসহায় মানুষদের কথা চিন্তা করে এবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee) আরও একটি উদ্যোগ নিয়েছেন। জানানো হয়েছে, ৭৫ ইউনিট পর্যন্ত সমস্ত Electricity Bill মুকুব করে দেবে রাজ্যের বিদ্যুৎ বিভাগ।

Advertisement

West Bengal Hasir Alo Scheme Electricity Bill.

তার ওপর বাড়তি যত ইউনিট খরচ হবে শুধু সেই টাকাটুকু হিসাব করে দিতে হবে গ্ৰাহকদের। রাজ্যের যেকোনো মানুষ এই Electricity Bill মকুবের সুবিধা পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন। কারা এই সুবিধা পাবেন? কিভাবে পাবেন? সেই বিষয়েই আজকের প্রতিবেদন। ২০২০ সালেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একটি প্রকল্প চালু করেন যার নাম হাসির আলো (Hasir Alo Scheme). ‌এর অধীনে ৭৫ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিল (Electricity Bill) মুকুব করে দেওয়া হয় নির্দিষ্ট ব্যক্তিদের।

Advertisement

বর্তমানে আলো, পাখা, টিভি, ফ্রিজ, কম্পিউটার সবার ঘরেই রয়েছে। সবকিছুই চলে কারেন্টে (Electric Bill). এমনকি আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোনটিও চার্জ দিতে গেলে দরকার হয় বিদ্যুতের। এর ফলে মাসের শেষে যখন বিদ্যুতের বিল আসে তখন দেখা যায় তা পরিমাণে বেশ অনেকটাই হয়েছে। এখানে উল্লেখ্য, এরাজ্যে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের (Electricity Bill) দাম দেশের অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় তার উপর বেশি।

এদিকে মানুষের আয় ব্যয়ের তুলনায় কম। স্বাভাবিকভাবেই হিমশিম অবস্থার মধ্যে পড়তে হয় তাদের। এই অবস্থায় রাজ্যের মানুষকে রেহাই দিতেই এই জনদরদী সিদ্ধান্ত মুখ্যমন্ত্রীর। আর এই প্রকল্প সম্পর্কে পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) অনেক মানুষই জানতেননা বা এখনো জানেননা। তাই এই ইলেকট্রিক বিল (Electricity Bill) মকুবের সুবিধা আপনারা কিভাবে পাবেন সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন।

হাসির আলো প্রকল্পের সুবিধা

রাজ্যের যে সকল পরিবার গুলি ০.৩ কিলোওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন, তাদের ৭৫ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ পরিষেবা, বিনামূল্যে প্রদান করবে রাজ্যের। প্রতি তিন মাস অন্তর বিল পাঠানো হয়। যে মাসে বিল দেখে যাওয়া হবে, তারপরের তিন মাসে মোট বিদ্যুতের পরিমাণ হিসাব করবে বিদ্যুৎ বিভাগ। যদি সেই পরিমাণ ৭৫ ইউনিট বা তার কম হয়, সে ক্ষেত্রে সমস্ত বিল টাই মুকুব করে দেওয়া হবে। আর যদি কারোর বিদ্যুৎ খরচ 75 ইউনিটের ওপর হয় তবে যতটুকু ইউনিট বেশি হয়েছে শুধু সেই টুকু টাকা হিসাব করে গুনতে হবে (Electricity Bill).

Advertisement

কারা সুবিধা পাওয়ার যোগ্য

  • রাজ্য সরকারের হাসির আলো প্রকল্পের (WB Govt Hasir Alo Scheme) আওতায় ৭৫ ইউনিট বিদ্যুৎ ফ্রি (Free Electricity) পাবেন শুধুমাত্র আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষরাই।
  • সঙ্গে অবশ্যই সেই সকল ব্যক্তিদের অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনা বা বিপিএল ক্যাটাগরির রেশন কার্ড (BPL Ration Card) থাকতে হবে।
Swasthya Sathi (স্বাস্থ্য সাথী কার্ড প্রকল্প)

কিভাবে আবেদন করা যাবে?

হাসির আলো প্রকল্পের সুবিধা পেতে হলে উপযুক্ত একজন ব্যক্তিকে তার নির্দিষ্ট ইলেকট্রিক অফিস (WBSEDCL CESC Office) কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। সেখানে গেলে এই সংক্রান্ত একটি আবেদন পত্র পাওয়া যাবে। যেটিকে সঠিকভাবে তথ্য দিয়ে পূরণ করে নিতে হবে। আর তারপর জমা করে দিলেই আবেদনের কাজ শেষ। তবে এই উপায় ছাড়াও আরেকটি উপায় রয়েছে (Electricity Bill).

মাধ্যমিক পরীক্ষার সময় বদল নিয়ে আদালতের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। 30 শে জানুয়ারীর মধ্যে করতে হবে।

মাঝে মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প (Duare Sarkar Camp) করা হয়। পরবর্তী দুয়ারে সরকার যখন হবে, তখন আপনার নিকটবর্তী ক্যাম্পে গিয়েও এই সংক্রান্ত আবেদন পত্র জমা দিতে পারেন। Electricity Bill নিয়ে এই ঘোষণার ফলে রাজ্যের লক্ষ লক্ষ মানুষের সুবিধা হতে চলেছে বলে মনে করছেন অনেকে। এই সম্পর্কে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।
Written by Nabadip Saha.

লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকা পেতে দেরি হচ্ছে?

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

4 thoughts on “Electricity Bill – পশ্চিমবঙ্গে 75 ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিল ফ্রি ঘোষণা। কিভাবে এই সুবিধা পাবেন?”

  1. The deficit from this act will increase the bill of others.Why govt.is not making the bill for Eve ry month instead of three months.

    Reply
  2. সকলের জন্যই ছাড় দেওয়া উচিত।যদি তা দেওয়া একান্তই সম্ভব না হয় অন্তত পক্ষে unit প্রতি দাম কমানো উচিত।

    Reply

Leave a Comment