Digha Trip – গল্প নয় সত্যি, মাত্র 45 টাকাতে ঘুরে আসুন দীঘা। কিভাবে যাবেন?

Digha Trip – মাত্র 45 টাকাতে ঘুরে আসুন দীঘা।

সপ্তাহান্তে ছুটি কাটাতে চান? তাও আবার স্বল্প খরচে? তাহলে বেড়িয়ে আসতে পারেন দীঘা (Digha Trip) থেকে রিজার্ভেশন এর ঝামেলা ছাড়াই। সবচেয়ে কম খরচে কিভাবে যাবেন, আসুন দেখে নেওয়া যাক।

Advertisement

উইকেন্ডে অনেকেই কাছাকাছি ঘুরতে যাবার প্ল্যান করেন। আর সেটা যদি হয় সমুদ্র, তাহলে তো কথাই নেই। বেড়িয়ে আসুন রেলপথে কলকাতা থেকে মাত্র 186 কিলোমিটার দূরে দীঘার সমুদ্রতট (Digha Resort)। খরচের কথা ভাববেন না, মাত্র 45 টাকা তে যেতে পারবেন রেলপথের হাওড়া থেকে দীঘা। তাই আর দেরি না করে চোখ বুলিয়ে নিন কিভাবে 45 টাকা তে দীঘা যেতে পারবেন।

Advertisement

অতিমারী আবহ সাধারণ মানুষের মন থেকে ধীরে ধীরে কাটছে। ফলে মানুষ দীর্ঘদিন ঘর বন্দী থাকার পর ঘুরতে বেরোতে শুরু করেছেন। বাঙালির কাছে সবচেয়ে কাছের উইকেন্ড কাটানোর জনপ্রিয় জায়গা নিঃসন্দেহে দীঘা (Digha Hotels)।

কিন্তু একদিকে বাংলা বছর শুরুর অপরদিকে কলকাতার পারদ চড়ছে তরতরিয়ে। যে কারণে উপচে পড়া ভিড় দীঘার সমুদ্র সৈকতে (Digha Resort)। এমনই অবস্থা যে রিজার্ভেশন পাওয়াটা দুষ্কর হয়ে পড়েছে।

সাধারণত কলকাতা থেকে দীঘা যেতে গেলে রেলপথে এক্সপ্রেস ট্রেন হাওড়া থেকে দীঘা যেতে সময় লাগে 4 ঘন্টা। সেক্ষেত্রে রিজার্ভেশন ভাড়া লাগে 120 টাকা। এছাড়া ধর্মতলা থেকেও দিঘার বাস ছাড়ে নিয়মিত। বাসে ধর্মতলা থেকে দীঘা যেতে সময় লাগে 4 থেকে 5 ঘন্টা। বাসের ভাড়া 150 টাকা।

Advertisement

আরো পড়ুন, নতুন করে ঢেলে সাজানো হচ্ছে শিয়ালদহ স্টেশন,

তবে আমরা আপনাদের কাছে আরো কম খরচে, মাত্র 45 টাকা তে একজন ব্যক্তির দীঘা যাবার সহজলভ্য উপায় জানাবো, রিজার্ভেশনের ঝামেলা ছাড়াই। কিন্তু তাই বলে জেনারেল কোচে যাবার কথা একেবারেই বলা হচ্ছে না। যাবতীয় ফিরিয়ে একজন ব্যক্তি হাওড়া থেকে দীঘা যেতে পারবেন মাত্র 45 টাকাতে (Digha Hotels)।

কিভাবে যাবেন মাত্র 45 টাকাতে হাওড়া থেকে দীঘা?
দীঘা যাওয়ার জন্য আপনাকে প্রথমে হাওড়া থেকে লোকাল ট্রেন ধরতে হবে। হাওড়া থেকে মেদিনীপুর, খড়গপুর বা পাঁশকুড়া গামী কোন লোকাল ট্রেনে উঠতে হবে। টিকিট ভাড়া মাত্র 15 টাকা। হাওড়া থেকে পাঁশকুড়া জংশন পৌঁছতে লোকাল ট্রেনে সময় লাগবে দেড় ঘন্টা। মেদিনীপুর লোকাল ছাড়া মোটামুটি সব ট্রেনই ফাঁকা থাকে।

এরপর পাঁশকুড়া থেকে দীঘা গামী ট্রেন ধরতে হবে আপনাকে। এক্ষেত্রে রয়েছে মেচেদা দীঘা EMU ট্রেন ও পাঁশকুড়া দীঘা EMU passenger ট্রেন পাঁশকুড়া দীঘা ট্রেন টি প্রতিদিন 7:35 থেকে ছাড়ে অন্যদিকে মেচেদা দিঘা ট্রেন ছাড়ে সকাল 8:30 টা নাগাদ পাঁশকুড়া থেকে দীঘা যাওয়ার ট্রেন গুলি ফাঁকাই থাকে সাধারণত।

তাই ঝঞ্ঝাট এড়াতে লোকাল ট্রেনই ভালো। সময় লাগবে এখানে 3 ঘন্টার মতো। ট্রেনের ভাড়া মাত্র 30 টাকা। তাহলেই বুঝে নিন কত অল্প খরচে ঘুরে আসতে পারবেন রিজার্ভেশন এর ঝামেলা ছাড়াই দীঘা থেকে (Digha Hotels).

যারা স্বল্প খরচে ঘুরতে পছন্দ করেন তাদের জন্য এই রুটটি দারুণ আকর্ষণীয় হতে পারে। তবে সময় একটু বেশি লাগবে, তা প্রায় 5 থেকে 6 ঘণ্টার মতো (Digha Hotels)। আবার একইভাবে ফেরার সময়ও লোকাল ট্রেনের টিকিট কেটে নিলে যাবতীয় সমস্যার সমাধান। ঝঞ্ঝাট এড়িয়ে ছুটির আস্বাদ উপভোগ করুন স্বপরিবারে।

আরো পড়ুন, বেড়ে গেল মিনিমাম ব্যালেন্স এর সীমা, বদলে গেল ব্যাঙ্কে টাকা রাখার নিয়ম।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment