SBI ATM Franchise Cost – বিনামূল্যে ষ্টেট ব্যাংকের ATM বসিয়ে, মাসে 50000 টাকা আয় করার সুযোগ, অনলাইনে আবেদন করুন, Best Opportunity.

SBI ATM Franchise Cost – একটি পয়সাও লাগবেনা, শুরু করুন SBI এর সাথে ব্যাবসা।

বাড়িতে বসে আয়ের সুযোগ খুব কমই আছে (SBI ATM Franchise Cost). তবে আজ আমরা এমন এক উপায়ের কথা জানাবো, যেখানে বাড়ি বসেই আপনি প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন।

Advertisement

আপনি নিশ্চয় খেয়াল করেছেন অনেকের বাড়ির নীচে ATM মেশিন বসানো। দিব্যি কাজ চলে যাচ্ছে। কিন্তু কিভাবে ATM মেশিন তাঁরা বসিয়েছেন তা হয়তো আপনারা অনেকেই ঠিক করে জানেন না। কোনো চিন্তা নেই, আমরা বলে দেব কিভাবে নিজের জায়গায় ATM মেশিন বসিয়ে আপনি অতিরিক্ত রোজগারের পথ খুঁজে পেতে পারেন। যেকোনো নামী ব্যাংকের( স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া SBI সহ) ATM মেশিন বসিয়ে প্রতি মাসে টাকা আয়ের এমন সুযোগ (SBI ATM Franchise Cost) এর আগে আপনি কোথাও পাননি।

Advertisement

আসুন জেনে নিই, নিজের জায়গায় কী কী লাগবে ATM মেশিন বসানোর জন্য?
প্রথমত, আপনার নিজের নামে ৫০ থেকে ৮০ বর্গফুট জায়গা থাকতে হবে। আর ATM বসানোর জন্য জায়গা নীচের তলায় হতে হবে। দোতালা বা তিনতলায় সেই জায়গা থাকলে কিন্তু হবে না। (SBI ATM Franchise Cost)
ওই জায়গাটিতে যেনো লোকজন ভালোভাবে যাতায়াত করতে পারেন সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আপনি যেখানে ATM বসাতে চান সেখানে ২৪ ঘন্টা বিদ্যুৎ পরিষেবা থাকা বাঞ্ছনীয়। আর সেই কাজটি আপনার নিজের খরচে করতে হবে।
আর অবশ্যই যেখানে ATM মেশিন বসাতে চান সেখানে উপরে কংক্রিটের ছাদ থাকতেই হবে।

ATM মেশিন বসানোর জন্য আবেদন করতে যা যা প্রয়োজন তা হলো:
(১) যেই স্থানে মেশিন বসানো হবে সেখানের জমির আসল নথি
(২) আপনার পরিচয়ের সচিত্র প্রমাণপত্র (আধার কার্ড,প্যান কার্ড, ভোটার কার্ড ইত্যাদি)
(৩) ঐ স্থানের ঠিকানার সঠিক
প্রমাণপত্র( ইলেকট্রিসিটি বিল, রেশন কার্ড ইত্যাদি)
(৪) আপনার ফটো, ইমেল আইডি, ফোন নম্বর.
(SBI ATM Franchise Cost)

আবেদন করতে গেলে যা যা মাথায় রাখতে হবে:
ATM মেশিন বসাতে চাইলে আপনার সরাসরি ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ করার কোনো দরকার নেই। কারণ কোনো ব্যাংকের তরফে ATM মেশিন বসানো হয়না। ব্যাংক বিভিন্ন কোম্পানির সাহায্য নিয়ে নিজেদের ATM মেশিন বসিয়ে থাকে। এইরকম বেশ কয়েকটি কোম্পানি যেমন -Tata Indicash ATM , India 1 Cash, Muthoot ATM প্রভৃতির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গেলেই আবেদন করতে পারবেন।
(SBI ATM Franchise Cost)

Advertisement

লোকসানের কোনও চান্সই নেই! নামমাত্র পুঁজিতে শুরু করুন নতুন এই ব্যাবসা।

আবেদন করার জন্য যা যা দরকার সেই সব কিছু মিললে কোম্পানির আধিকারিক সরাসরি আপনার জায়গায় গিয়ে পরিদর্শন করে আসবেন। আপনার জায়গাটা যদি ATM মেশিন বসানোর যোগ্য হয় তবে তাঁরাই আপনার সঙ্গে পুনরায় যোগাযোগ করে নেবেন।
(SBI ATM Franchise Cost)

এবার জেনে নিন ATM মেশিন বসিয়ে কত টাকা অবধি উপার্জন করতে পারবেন।

• আপনার জায়গায় ATM মেশিন বসানোর জন্য আপনাকে সেই কোম্পানির তরফ থেকে প্রতি মাসে নির্দিষ্ট ভাড়া হিসেবে কমপক্ষে ১৫,০০০ থেকে ২০,০০০ টাকা অবধি দেওয়া হবে। আপনার জায়গাটি যদি খুব জনবহুল এলাকায় হয়ে থাকে এবং সেখানে জমির দাম বেশি হয় তাহলে আপনি ৩০,০০০ থেকে ৫০,০০০ টাকা অবধিও ভাড়া পেতে পারেন। সবটাই নির্ভর করছে এলাকার ওপর।

চাকরির পাশাপাশি ব্যবসা করতে চান? মাত্র ২০০০ টাকা বিনিয়োগে মাসে ২০০০০ টাকা আয়।

• প্রতি মাসে আপনি পেয়ে যাবেন কমিশন। যেমন ধরুন দিনে একটি ক্যাশ উইথড্রয়াল ট্রানজাকশান-এর জন্য ৮ টাকা করে ও একটি নন-ক্যাশ উইথড্রয়াল ট্রানজাকশান (যেমন- অ্যাকাউন্ট ডিটেইলস চেক, ব্যালান্স চেক ইত্যাদি ক্ষেত্রে)-এর জন্য আপনাকে ২ টাকা করে দেওয়া হবে। দেখা যাচ্ছে, একদিনে আপনার ATM এ ১০০ টি ক্যাশ ট্রানজাকশান হয়েছে তাহলে আপনি পেয়ে যাবেন ৮০০ টাকা। আর এভাবে আপনি জায়গার ভাড়ার পাশাপাশি প্রতি ট্রানজাকশান এ প্রতি মাসে আরও ২৪,০০০ থেকে ৩০,০০০ টাকা অবধি অতিরিক্ত উপার্জন করতে পারবেন।
(SBI ATM Franchise Cost)

তাই, ATM মেশিন বসানোর মতো পর্যাপ্ত জায়গা আর অন্যান্য সমস্ত চাহিদাগুলো যদি আপনার কাছে থাকা জায়গার সঙ্গে মিলে যায় তাহলে দেরী না করে আজই আবেদন করুন নিজের বাড়িতে ATM মেশিন বসানোর জন্য।
Written by Rupa Dutta.

অনলাইনে আবেদন করতে এখানে ক্লিক করুন

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment