Mamata Banerjee – কৃষকদের জন্য সুখবর অকাল বৃষ্টিতে, যাদের ফসলের ক্ষতি হয়েছে। তাদের ক্ষতিপূরণ দেবেন মমতা।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বা WB CM Mamata Banerjee এর তরফে ফের একবারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করা হল। নতুন বছরে হতে চলেছে লোকসভা ভোট। ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটে নিজেদের দলকে জেতানোর জন্য বিভিন্ন কাজে শামিল হয়েছে রাজনৈতিক দল গুলি। কয়েক দিন আগে পাহাড় সফরে গেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে গিয়ে তিনি আলিপুরদুয়ারের এক সরকারি অনুষ্ঠানে যোগদান করেছিলেন।

Advertisement

Mamata Banerjee New Announcement For Farmers.

ওই মঞ্চ থেকে (CM Mamata Banerjee) তিনি সরকারি বিভিন্ন প্রকল্প যেমন লক্ষ্মীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar), কৃষক বন্ধু প্রকল্প (Krishak Bandhu), বার্ধক্য ভাতা (Old Age Pension) প্রভৃতি প্রকল্প নিয়ে নানান বার্তা প্রেরণ করেন।এর পাশাপাশি তিনি কৃষকদের জানিয়েছেন যে অকাল বৃষ্টিতে চাষের যে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সেই ক্ষতিপূরণ দেবে রাজ্য সরকার (Government Of West Bengal).

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গের চাষিরা হল গরিব শ্রেণীর মানুষ। কৃষি কাজের জন্য উন্নত ধরনের যন্ত্রপাতি তারা কিনতে পারে না। আর এই কারণে কৃষকদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee). কৃষকদের চাষের কাজে সহায়তা দানের জন্য তিনি কৃষক বন্ধু প্রকল্পের উদ্ভাবন ঘটিয়েছেন। এই কৃষক বন্ধু প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলার কৃষকরা বছরে ১০,০০০ টাকা পান। তবে এই টাকাটি কৃষকরা একবারে পান না।

কিস্তির মাধ্যমে এই টাকাটি কৃষকদের ব্যাংক একাউন্টে দেওয়া হয়। এছাড়াও এই কৃষক বন্ধু প্রকল্পের মাধ্যমে বিমার সুবিধাও পাওয়া যায়। যদি কৃষকের হঠাৎ করে মৃত্যু ঘটে সে ক্ষেত্রে তার পরিবার বীমার আওতায় বেশ কিছু অঙ্কের টাকা পাবে। কৃষক বন্ধু প্রকল্প সম্পর্কে এদিন ওই সভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee) বলেছেন “আগামী ১২ ডিসেম্বর ১ কোটি ২০ লক্ষ কৃষক কৃষি বন্ধুর টাকা পাবেন।

আর আলিপুরদুয়ারের ৯০ হাজার কৃষকের খরিপ চাষের টাকা ঢুকে যাবে তাঁদের ব্যাংক একাউন্টে। দুবারে মোট দশ হাজার টাকা পাবেন তাঁরা। এই বছর অকাল বৃষ্টির কারণে চাষের কাজ খুবই ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। আলু চাষেও হয়েছে ভরাডুবি তাই বাংলার কৃষকদের হাত এখন কপালে উঠে দাঁড়িয়েছে। এই প্রসঙ্গে কৃষকদের আশ্বস্ত করে মুখ্যমন্ত্রী Mamata Banerjee বলেন এখন কৃষকদের শস্য বিমার টাকা সরকার দেয়। কৃষি জমির সেজ আমরা তুলে দিয়েছি।

Advertisement
Income Tax (ইনকাম ট্যাক্স)

সরকার নিজে খাজনা দেয়। তাই যাঁদের শস্য বিমা করা রয়েছে সকলেই টাকা পাবেন। আর যাঁদের করা নেই দুয়ারে সরকারে (Duare Sarkar Camp) দরখাস্থ করবেন। সমস্ত পরিষেবা প্রদানের চেষ্টা করা হবে। এর পাশাপাশি তিনি কার্শিয়াং এ গিয়েও কৃষকদের সঙ্গে কথাবার্তা বলে তাদের পাশে থাকার বার্তা প্রেরণ করেছেন। কয়েকদিন আগে কৃষকদের এমন পরিস্থিতির জন্য রাজ্য সরকারকে দায়ী করেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikary).

লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পে এক পরিবারের কতজন মহিলা টাকা পাবে? বিরাট সুখবর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

বিধানসভাতেও তিনি এই বিষয়ে প্রশ্ন উত্থাপিত করেন। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee) এই সমস্ত কথার দিকে কান না দিয়ে নানান বার্তা প্রেরণ করেন কৃষকদের জন্য। আর এই ঘোষণার মাধ্যমে রাজ্যের সকল অন্নদাতা বা কৃষক বন্ধুদের উপকার হতে চলেছে। রাজ্যে সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে সকল ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের দারুণ সুবিধা হতে চলেছে। আগামীদিনে সরকারের (Mamata Banerjee) তরফে আরও অনেক সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।
Written by Nupur Chattopadhyay.

প্রত্যেক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী পাবে ফ্রিতে টেস্ট পেপার। কবে থেকে

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment