RBI Bonds – কেন্দ্রীয় সরকারের এই বন্ডে টাকা রাখলে ডবল রিটার্ন নিশ্চিত!! ব্যাংক পোস্ট অফিস ধারে কাছে নেই।

আমরা বিনিয়োগ করি নিশ্চিত ভবিষ্যতের জন্য। আর এই জন্য RBI Bonds নামক এক নতুন বিনিয়োগের অপশন নিয়ে আসা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের (Central Government) তরফে। সঞ্চিত অর্থের ওপর বেশি পরিমাণ লাভ উঠানোর জন্য, তাই তো? যে টাকা আমরা গচ্ছিত রাখছি সেই টাকা যদি বড়সড় রিটার্ন (Investment Return) এর সঙ্গে আমাদের কাছে ফেরত না আসে তাহলে বিনিয়োগ করে লাভ কি!

Advertisement

RBI Bonds Investment Benefits.

বাজারে এমন অনেক স্কিম রয়েছে যে গুলি ভালো রিটার্নের লোভ দেখাবে। কিন্তু সময় শেষে দেখবেন আপনার তেমন কোন লাভই হলো না। যেমন যদি কথা বলি ফিক্সড ডিপোজিট (Fixed Deposit), পিপিএফ (PPF), রিকারিং ডিপোজিট (RD) নিয়ে তবে দেখবেন এগুলিতে সুদের হার অনেক কম। তাই টাকা বাড়তেও সময় লাগে অনেকটাই। কিন্তু আপনার টাকা লাভ যদি আপনি বেঁচে থাকতেই না ওঠাতে পারলেন তবে টাকা জমা রেখে লাভ কি? (RBI Bonds).

Advertisement

এবার থেকে আর এভাবে ঠকবেন না। সম্প্রতি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এক বিশেষ স্কিম। যেটি আপনাকে দেবে ৮.৫ শতাংশ সুদ। ফলে আপনার টাকা বাড়বে রকেটের গতিতে। আমরা প্রত্যেকেই নিজেদের ও নিজেদের পরিবারের ভবিষ্যতের জন্য বিনিয়োগ করে থাকি। কিন্তু জীবন মাত্র ২ দিনের এই কথাটি আমরা সকলেই শুনেছি এবং এই কারণের জন্যই আমরা সকলেই কম সময়ে বেশি রিটার্ন পাওয়া যাবে এমন বিনিয়োগ প্ল্যান (Best Investment Plan) সম্পর্কে জানতে চাই।

RBI Bonds interest rate

ভারত সরকার (Government Of India) দ্বারা জারি করা ফ্লোটিং রেট সেভিংস বন্ডকে (Savings Bond) আরবিআই বন্ড (RBI Bond) বলা হয়। এতে স্থায়ী সুদ পাওয়া যায় না, ৬ মাস অন্তর সুদের হার পরিবর্তিত হয়। এখানে আপনারা সর্বনিম্ন ১০০০ টাকা থেকে বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। এখানে বিনিয়োগ করার কোন ঊর্ধ্বসীমা নেই। যে কোনো সরকারি ব্যাংক (Public Sector Bank) এবং কিছু কিছু জনপ্রিয় বেসরকারি ব্যাংক (Private Bank) থেকে এটি কিনতে পারবেন।

RBI Bonds বা রিজার্ভ ব্যাংকের তরফে জারি করা বন্ড হস্তান্তর যোগ্য নয়, শুধুমাত্র বিনিয়োগকারী ব্যাক্তির মৃত্যুর পর নমনীয় নামে হস্তান্তর করা যাবে। এছাড়াও বার্ষিক সুদের পরিমার ১০,০০০ টাকার বেশি হলে TDS করা হয়। আর এই সম্পর্কে একটি জিনিস আপনাদের জেনে নেওয়া উচিত। যে কোন প্রকারের বিনিয়োগের আগে আপনাদের সেই সম্পর্কে সব কিছু জেনে নিতে হবে।

Advertisement

কারা বিনিয়োগ করতে পারেন?

RBI Bonds বিনিয়োগ করার জন্য আপনাকে একজন স্থায়ী ভারতীয় নাগরিক হওয়া প্রয়োজন। NRI (Non Resident Indians) বা প্রবাসী ভারতীয়রা এখানে আবেদন বিনিয়োগ পারবেন না। আপনি যদি প্রাপ্ত বয়স্ক হন তাহলে এখানে বিনিয়োগ করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি একজন অভিভাবক হয়ে নাবালকের জন্য নিয়োগ করতে পারেন এবং এখানে যৌথ ভাবেও আবেদন করা যাবে।

কত সুদ পাওয়া যায়?

যেহেতু RBI Bonds ফ্লোটিং ইন্টারেস্ট রেট (Floting Interest Rate) থাকে, তুই এখানে সুদের হার কখনো স্থির থাকে না। তা বাড়া কমা করে। এন এস সি ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট অনুযায়ী এখানে সুদের হার নির্ধারণ করা হয়। প্রতিবছর দুবার এই সুদের হার নির্ধারিত হয়। একটি জানুয়ারি এবং অপরটি জুলাই মাসে। প্রতি ছয় মাস অন্তর আগে সুদের হারের সঙ্গে ৩৫ বেসিস পয়েন্ট যুক্ত করে স্থির হয় সুদের হার। বর্তমানে RBI Bonds টাকা বিনিয়োগ করলে একজন ব্যক্তি পেয়ে যান ৮.৫% সুদ।

আরবিআই বন্ডের মেয়াদ কতদিন?

RBI Bonds ৭ বছরের মেয়াদে টাকা বিনিয়োগ করতে হয়। তবে প্রবীর নাগরিকদের ক্ষেত্রে বিভিন্ন বয়স অনুযায়ী এই মেয়াদ কম করা হয়। ৬০ থেকে ৭০ বছরের নাগরিক দের জন্য মেয়াদ ৬ বছর, ৭০ থেকে ৮০ বছরের নাগরিকদের জন্য মেয়াদ ৫ বছর এবং ৮০ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সের নাগরিকদের জন্য মেয়াদ ৪ বছর। তবে এই মেয়াদ গুলিতে লক ইন পিরিয়ড (Lock In Period) থাকে। তাই ম্যাচিউরিটির আগে আপনি টাকা প্রত্যাহার করে নিতে পারবেন না। তবে প্রবীর নাগরিকদের ক্ষেত্রে প্রিম্যাচিউরড উইথড্রয়ালের (Premature Withdrawal) অনুমোদন দেওয়া হয়।

নূন্যতম কত বিনিয়োগ করতে হয়?

RBI Bonds যে ব্যক্তিই বিনিয়োগ করুন না কেন তাকে ন্যূনতম ১০০০ টাকা দিয়ে শুরু করতে হয় বিনিয়োগ। এরপর থেকে ১০০০ টাকার গুণিতকে আপনি চালিয়ে যেতে পারেন। বিনিয়োগের কোন ঊর্ধ্বসীমা নেই। আর ব্যাংক বা পোস্ট অফিসের তুলনাতে এই বিনিয়োগ স্কিমে সকল ভারতীয়রা অনেকটাই বেশি টাকা এককালীন রিটার্ন পেতে পারবেন। এই জন্য সকলকেই এই বিনিয়োগ করা উচিত।

Retirement Benefits (অবসরের সুবিধা)

কিভাবে এখানে আবেদন করবেন?

  • এর মধ্যে যে ব্যাংকে আপনার একাউন্ট আছে সেখানে গিয়ে প্রথমে যোগাযোগ করতে হবে।
  • আপনি RBI Bonds টাকা বিনিয়োগ করতে চাইলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ আপনাকে একটি ফর্ম দেবে।
  • সেই ফরমটি পূরণ করতে হবে।
  • তারপর প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস জমা করতে হবে।
  • সেই সঙ্গে আপনি যত টাকা বিনিয়োগ করতে চান সেটিও জমা করতে হবে।
  • সমস্ত কাজ শেষ। ট্রানজেকশন সফল হওয়ার পর ব্যাংক আপনাকে একটি রশিদ দেবে। এটি রেখে দিন।

1 লাখ টাকা বিনিয়োগে, ব্যাংক ও পোস্ট অফিসের FD ও MIS এ কত টাকা সুদ পাবেন?

RBI Bonds এর সম্পর্কে আপনাদের মত অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আর আপনারা এই ধরণের আরও বিনিয়োগ স্কিম সম্পর্কে জানতে হলে আমাদের এই EK24 News ওয়েব পোর্টালটি ফলো করুন। এছাড়াও আপনারা নিজেদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করার জন্য এই RBI Bonds ছাড়াও অন্য অনেক বিনিয়োগের মধ্যে থেকে যে কোনো একটিতে অবশ্যই নিবেশ করুন।
Written by Nabadip Saha.

নতুন বছরে সুদ বাড়লো। এই 6 টি ব্যাংকে টাকা রাখলে পাবেন 8% পর্যন্ত সর্বোচ্চ

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment