Finance Commission – বড় খবর, গঠিত হলো অর্থ কমিশন। রাজ্যে তবে কি আবার DA বাড়তে চলেছে?

Dearness Allowance বা মহার্ঘ ভাতা নিয়ে ঝামেলা ক্রমাগত লেগেই রয়েছে, এরই মধ্যে Finance Commission বা বেতন কমিশন নিয়ে বড় খবর পাওয়া গেল। নতুন বছর থেকে ৪ শতাংশ ডিএ ঘোষণা করা হয়েছে রাজ্য সরকারের (Government Of West Bengal) তরফে। কিন্তু কেন্দ্রীয় হারে ডিএ না পাওয়া পর্যন্ত খুশি নন সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের কর্মীরা। তবে অবশেষে তাদের আশা পূরণ হতে চলেছে এবার। মুখ্যমন্ত্রী এর আগে বলেছিলেন, রাজ্য অর্থনীতিতে টানাটানি থাকার জন্য কেন্দ্রীয় হারে ডিএ দেওয়া সম্ভব নয়।

Advertisement

New Finance Commission Established By NITI Aayog.

কিন্তু এবার রাজ্যের এই আর্থিক অবস্থা হতে চলেছে আরো সচ্ছল। কেন্দ্রের (Central Government) তরফ থেকে বিরাট বড় অংকের টাকার অনুদান পাবে রাজ্য, এরকমই একটি খবর মিলেছে কেন্দ্রীয় সরকার সূত্রে। ফলে এখন একটা আশা তো করাই যায় যে কেন্দ্রীয় হারে বেতন (Salary Hike) বাড়তে পারে এবার। যদিও অনেকেই সম্ভাবনা দেখছেন এর। দেখে নেওয়া যাক কেন্দ্রীয় সরকার কি কি জানিয়েছে এ ব্যাপারে। নতুন বছরের শুরুতে কেন্দ্রীয় সরকার গঠন করলো ১৬ তম অর্থ কমিশন (16Th Finance Commission).

Advertisement

সাধারণত প্রতি পাঁচ বছর অন্তর এই Finance Commission তৈরি করা হয়। কেন্দ্রীয় অর্থ কমিশন ইউনিয়ন এবং রাজ্য গুলির মধ্যে কর থেকে নেট আয় বণ্টন সংক্রান্ত সুপারিশ করে৷ অর্থ ও কর ব্যবস্থার ক্ষেত্রে কেন্দ্র ও রাজ্য গুলির মধ্যে কী ধরনের বিনিময় হবে সে সম্পর্কে Finance Commission গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়। একটি অর্থ কমিশনের মেয়াদ পাঁচ বছর। ২০২২ সালে গঠিত হয়েছিল 15 তম অর্থ কমিশন যার মেয়াদ ছিল।

এবার ২০২৪ সালে যে 16 তম অর্থ কমিশন (Finance Commission) গঠিত হলো সেটির মেয়াদ থাকবে ২০২৯ সাল পর্যন্ত। নীতি আয়োগ এর প্রাক্তন চেয়ারম্যান অরবিন্দ পাঙ্গারিয়া এই কমিশনের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হয়েছেন। এখন এই কমিশনের কাজ চলছে। তদন্ত শেষ হলে রিপোর্ট পেশ করা হবে কেন্দ্রীয় সরকারের (Central Government) কাছে। তারপরই বন্টন নিয়ে চিন্তা করবে কেন্দ্র। কোন রাজ্যকে কত অনুদান দেওয়া হবে? আগের চেয়ে অনুদান বাড়বে কিনা?

DA Announcement (4% ডিএ ঘোষণা)

সে সব কিছু তখনই জানা যাবে। যদিও পশ্চিমবঙ্গের প্রসঙ্গে কেন্দ্রের একাধিক অভিযোগ রয়েছে। অনেকেরই বক্তব্য, “কেন্দ্র থেকে কোটি কোটি টাকা অনুদান পেয়েছে বাংলা। কিন্তু তা সত্ত্বেও এখানকার কর্মচারীদের বেতন বাড়ানো হয়নি। তাহলে সেই টাকা গুলি যাচ্ছে কোথায়?” তাই নতুন বন্টন ব্যবস্থার হিসাব তৈরি করা হলেও পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে অনুদানের পরিমাণ আদৌ পারবে (Finance Commission) কিনা সে বিষয়ে সন্দেহ রয়েছে।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গের সরকারী কর্মীরা এবার কাজে ফাঁকি দিলেই 10 হাজার টাকা জরিমানা। নতুন নিয়ম চালু।

এই প্রসঙ্গে সরকারি কর্মচারী পরিষদের চেয়ারম্যান দেবাশীষ শীল বলেন, ‘ষষ্ঠদশ বেতন কমিশন (Finance Commission) গঠন করা হয়েছে।আবার রাজ্য সরকার গুলি আরও বেশি পরিমাণ আর্থিক অনুদান পাবে। তা সত্ত্বেও, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের কর্মচারী, পেনশনভোগী, শিক্ষকদের ডিএ বঞ্চনা ক্রমবর্ধমান হারে বাড়বে। মোদীজির আমল থেকে যত টাকাই Finance Commission অনুদান বাড়ানো হোক না কেন, এই রাজ্য সরকারের বড় এজেন্ডা হল ন্যূনতম ডিএ দেওয়া।
Written by Nabadip Saha.

নতুন বছরে অবশেষে এক দফায় বাড়ল ডিএ! বাংলার সরকারি কর্মীরা কত টাকা

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment