Best Government Investment Plans – এই সরকারী স্কীমে টাকা রাখলে সবচেয়ে বেশি সুদ পাবেন, আর মার যাওয়ার ভয় নেই

অনেকেই বেশি সুদের আশায় অনেক বেনামী কোম্পানীতে টাকা বিনিয়োগ করেন (Best Government Investment Plans), যার ফল কি হয়, সকলেরই জানা। কিন্তু সরকারী প্রকল্পে টাকা বিনিয়োগ করলে টাকা হারানোর ভয় নেই। আজ আলোচনা করবো এমন কিছু সরকারী স্কীম নিয়ে (Best Government Investment Plans), যাতে নিরাপত্তার সাথে রিটার্ন ও বেশি পাবেন, এবং তার সাথে ট্যাক্স বেনিফিট ও পাওয়া যাবে।

Advertisement

প্রত্যেকটি স্কীমে পাবেন ৭ শতাংশের বেশি সুদ (Best Government Investment Plans)

Advertisement

কম টাকা জমিয়ে সুনিশ্চিত ভবিষ্যতের জন্য ভেবে দেখতে পারেন এই স্মল সেভিংস স্কিমগুলি। নিম্নগামী সুদের হারের বাজারে ৭ শতাংশের বেশি ইন্টারেস্ট দিচ্ছে এর মধ্যে বেশ কিছু স্কিম। জেনে নিন সেই গুলি (Best Government Investment Plans)। এবং এই প্রকল্প গুলো যেকোনো ব্যাঙ্ক কিম্বা পোষ্ট অফিস থেকে করতে পারবেন।

১) সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা

সরকারি এই স্মল সেভিংস স্কিমের মধ্যে সবথেকে বেশি সুদ পাওয়া যায় সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনায়। এই যোজনায় টাকা রাখলে বছরে ৭.৬ শতাংশ সুদ পেতে পারেন বিনিয়োগকারী। সুদের হারের ওপর ভিত্তি করে ৯ বছরে এই প্রকল্পের টাকা ডবল হয়ে যায়।
তবে এই প্রকল্পের রয়েছে কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম। সেই অনুযায়ী বছরে ন্যূনতম ২৫০ টাকা অ্যাকাউন্টে জমা করতেই হবে আমানতকারীকে। টাকা রাখার নিয়ম অনুসারে বছরে সর্বোচ্চ ১,৫০,০০০টাকা রাখতে পারবেন গ্রাহক। বিনিয়োগকারীকে ব্যাঙ্ক বা পোস্ট অফিসে যেখানে তিনি অ্যাকাউন্ট খুলেছেন সব সময় ৫০ টাকার গুনিতকে টাকা জমা করতে হবে। সেই ক্ষেত্রে একবারের বেশি টাকা রাখতে পারেন গ্রাহক। এই প্রকল্পে সরাসরি ট্যাক্স ছাড় পাওয়া যায়।

Advertisement

২) সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম

এই বাজারেও এখনও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম Senior Citizen Saving Scheme (SCSS)। বছরে ৭.৪ শতাংশ সুদ পাওয়া যায় এই স্কিমে। এই যোজনাতেও ৯ বছরে দ্বিগুণ হয়ে যায় টাকা। সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য একলপ্তে এই টাকা দিতে হবে প্রকল্পে। জমার টাকার অবশ্যই ১০০০টাকার গুণিতকে জমা দিতে হবে। অর্থাৎ ১০০০, ২০০০, ৩০০০ ইত্যাদি। এবং কোনওভাবেই এই প্রকল্পে ১৫,০০,০০০ টাকা বেশি রাখতে পারবেন না আমানতকারী।

Advertisement

আরও পড়ুন,  বিটকয়েন ও ক্রিপ্টোকারেন্সি তে বিনিয়োগ করার 4 টি নির্ভরযোগ্য অ্যাপ

Advertisement

৩) পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডে টাকা রাখলে বছরে ৭.১ শতাংশ সুদ পাবেন আমানতকারী। এই যোজনায় আপনার টাকা দ্বিগুণ হতে সময় নেবে ১০ বছর। এই ক্ষেত্রে ১৫ বছরের পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড পাওয়ার সুযোগ পাবেন বিনিয়োগকারী। স্কিমের নিয়ম অনুসারে বছরে ন্যূনতম ৫০০টাকা ও সর্বোচ্চ ১,৫০,০০০ টাকা রাখতে পারবেন আমানতকারী।

৪) কিষাণ বিকাশ পত্র

৬.৯ শতাংশ সুদ পাওয়া যায় এই প্রকল্পে টাকা রেখে। টাকা দ্বিগুণ হতে সময় নেয় ১০ বছর ৪মাস। প্রকল্পের নিয়ম অনুসারে ব্যক্তিকে ন্যূনতম ১০০০ টাকা বছরে রাখতেই হবে। তবে এই টাকা জমার কোনও ঊর্ধ্বসীমা নেই। টাকা জমার ক্ষেত্রে আমানতকারীকে ১০০ টাকার গুণিতকে টাকা জমা করতে হবে।

Advertisement

৫) ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট

৬.৮ শতাংশ ইন্টারেস্ট পাওয়া যায় পাঁচ বছরের এই সেভিংস প্ল্যানে। আমানতকারীর টাকা দ্বিগুণ হতে সময় নেয় ১০ বছরের বেশি। এই যোজনায় ১০০০টাকা রাখলে ৫ বছর পর ১৩৮৯.৪৯ টাকা দাঁড়াবে।

আরও পড়ুন, পোষ্ট অফিসের নতুন স্কীম, মাত্র দশ হাজার দিলে লাখ টাকা পাবেন

Advertisement
শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment