Teacher Recruitment – রাজ্যের B.Ed প্রার্থীদের মাথায় হাত। কপাল খুললো নতুন D.El.Ed প্রার্থীদের।

পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষক নিয়োগ (Teacher Recruitment) নিয়ে নানা রকমের অশান্তি চলে আসছে বহুদিন ধরে। আদালতের কাছে পাহাড় প্রমাণ কেস বিচারের জন্য পড়ে রয়েছে এখনো। একেকবার এই সব কেসের শুনানি হচ্ছে এবং আদালত কক্ষে উঠে আসছে বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর তথ্য। যার জেরে ভুগতে হচ্ছে চাকরিপ্রার্থী এমন কি কর্মরত শিক্ষকদেরও। হাইকোর্টের নির্দেশে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হয়ে চাকরি গেছে বহু শিক্ষকের (School Teacher).

Advertisement

Teacher Recruitment Verdict By Highcourt.

এবার আবারো একটি চাঞ্চল্যকর নির্দেশ উঠে এলো আদালতের ডিভিশন বেঞ্চ থেকে। বলা হলো, যে সব শিক্ষকরা বিএড (B.Ed) করেছেন তাদেরকে শিক্ষক হিসেবে আর মানা হবে না, কেবল ডিএলএড (D.El.Ed) পাশ দেরই শিক্ষক পদে রাখা হবে এবার থেকে অর্থাৎ আদালতের নির্দেশে স্পষ্ট হয়, হাজার হাজার বিএড পাস শিক্ষকরা (B.Ed Teacher Recruitment) এবার হারাতে চলেছেন তাদের চাকরি। কিন্তু এই খবরটি ছত্তিসগড় রাজ্যের জন্য।

Advertisement

সম্প্রতি ছত্তিসগড় হাইকোর্টের তরফ থেকে এই ঘোষণা জারি করা হয়েছে। রাজ্য সরকার সহকারী শিক্ষক পদের জন্য বি এড ডিগ্রিধারীদের আমন্ত্রণ জানিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল ২০২৩ সালে। কিন্তু তার প্রতিবাদে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন D.El.Ed প্রার্থীরা। তারা জানান সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court Of India) রায় অনুযায়ী কেবল ডি এল এড প্রার্থীরাই সহকারী শিক্ষকের (Teacher Recruitment) পরীক্ষা দিতে পারেন।

তাই বিএড প্রার্থীদের চাকরি দেওয়া যাবে না। তাদের দাবি খতিয়ে দেখে হাইকোর্ট অবশেষে সেই বিজ্ঞপ্তি বাতিল করতে বাধ্য হয়। আর রাজ্যকে নিয়োগের কাউন্সেলিং বন্ধ করে ডি এল এড প্রার্থীদের সংশোধিত তালিকা প্রকাশেরও নির্দেশ দেয়। আগামী ৬ সপ্তাহের মধ্যে সেই তালিকা বের করতে হবে। তবে বলা বাহুল্য, এই নির্দেশ প্রযোজ্য হবে কেবল প্রাথমিকস্তরের শিক্ষকদের (Teacher Recruitment) ক্ষেত্রেই।

PM Svanidhi Scheme (প্রধানমন্ত্রী স্বনিধি যোজনা)

উচ্চ প্রাথমিক বা মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষকদের ক্ষেত্রে আগে নিয়ম যা ছিল তাই থাকছে।
ছত্তিশগড়ের বিলাসপুর হাইকোর্ট তার সংরক্ষিত রায়কে সামনে এনেছে এবার। গত ২৯ শে ফেব্রুয়ারি বিচারপতি রমেশ কুমার সিনহার ডিভিশন বেঞ্চে এই মামলাটি (Teacher Recruitment Case) উঠে প্রথমবার। তখন মামলার রায়টি কে সংরক্ষণ করে রেখে দেয় আদালত। সেই দিন তা ঘোষণা করা হয়নি।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গে নতুন সরকারি চাকরিতে নিয়োগের আশা। হাইকোর্টের নির্দেশে খুশি চাকরিপ্রার্থীরা।

এরপর সেটি গতকাল আবার জায়গা পায় আদালত পক্ষে। আর এই দিন মামলার চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করে সমস্ত ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়েছে আদালত। স্পষ্ট বলে দেওয়া হয়েছে বিএড ও ডিএলএড প্রার্থীরা এখন থেকে সহকারী শিক্ষক (Teacher Recruitment) পদের জন্য অনুপযুক্ত। কেবল ডি এল এড প্রার্থীরাই আবেদন করতে পারবেন। আর এই জন্য কারোর পৌষ মাস হল আর কারোর সর্বনাশ! আর এই নির্দেশ শুধুমাত্র ছত্তিসগড় রাজ্যের হাইকোর্টের তরফে দেওয়া হয়েছে।
Written by Nabadip Saha.

ডেটা এন্ট্রি অপারেটর পদে কর্মী নিয়োগ শুরু পশ্চিমবঙ্গে। শীঘ্রই আবেদন করুন।

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment