Bank Frauds in India – প্রতিদিন কোটি টাকা ব্যাংক ফ্রড হচ্ছে, সুদ কমিয়ে সেই মাসুল আপনাকে ও গ্রাহককে দিতে হচ্ছে, দেখুন রিপোর্ট।

Bank Frauds in India – জানেন কি প্রতিদিন কত কোটি টাকার ব্যাঙ্ক দুর্নীতি হয়েছে আরবিআই-এ? শুনলে আঁতকে উঠবেন আপনিও!

ভারতের সমস্ত ব্যাংকের শীর্ষে রয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (RBI). ভারতের বাজারে অংশীদার (Bank Frauds in India) থাকা বাকি সমস্ত ব্যাঙ্কই আরবিআই- এর অধীনে থেকে গ্রাহকদের বিভিন্ন স্কিমে বিনিয়োগের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করে চলে।

Advertisement

নিশ্চয়ই জানা আছে বছর কয়েক আগে নীরব মোদী, বিজয় মালিয়্যা ভারতের বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক থেকে কোটি কোটি টাকার লোন নিয়ে তা পরিশোধ না করেই দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন (Bank Frauds in India)। এনিয়ে নানা তদন্ত করা হলেও তার ফলপ্রসূ উত্তর দেশবাসী পাননি এখনও। তবে এমন একটি রিপোর্ট পাওয়া গেছে শুনলে আতকে উঠবেন আপনিও।

Advertisement

উপরন্তু, তারপর থেকে নানান প্রতিশ্রুতি শোনা গেলেও ব্যাঙ্ক দুর্নীতি যে আগের মতই হয়েছে বা হচ্ছে তাই একপ্রকার মেনে নিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। একেই অতিমারীর ধাক্কা উপরন্তু ইউ ক্রেন রা’শিয়া আবহে টালমাটাল অবস্থা ভারতসহ গোটা বিশ্বের অর্থনীতির। তার ওপর ব্যাঙ্কয়ের তরফে দেওয়া এই দুর্নীতির (Bank Frauds in India) তথ্য শুনলে আঁতকে উঠবেন আপনিও! আরবিআই-এর কথায়, গত সাত বছরে এই ব্যাঙ্ক দুর্নীতির জেরে খোয়াতে হয়েছে প্রতিদিন প্রায় ১০০ কোটি টাকা।

চটজলদি দেখে নেওয়া যাক কোন রাজ্য দুর্নীতির দিক থেকে কতটা এগিয়ে-
১) কথায় আছে “সর্ষের মধ্যে ভূত লুকিয়ে”। ঠিক তেমনি ভারতের সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক রাজ্য মহারাষ্ট্র এই ব্যাঙ্ক দুর্নীতির থেকে সবার চেয়ে এগিয়ে। আরবিআই-এর প্রকাশিত তালিকা অনুযায়ী গোটা দেশের সামগ্রিক ব্যাঙ্ক দুর্নীতির (Bank Frauds in India) প্রায় ৫০% এই স্থানে হয়।

২) এরপরে যে রাজ্যের নাম গুলি না বললেই নয় সেগুলি হল ভারতের রাজধানী দিল্লি, সদ্য স্বাধীন রাজ্য তেলেঙ্গানা, এবং গুজরাট ও তামিলনাড়ু। আর বি আই এর কথায় গত সাত বছরে এই সমস্ত রাজ্য থেকে ২ লক্ষ কোটি টাকার বেশি ব্যাঙ্ক দুর্নীতি করা হয়েছে। যেটি সমগ্র দেশের আর্থিক দুর্নীতির ৮৩%।

Advertisement

ইতিমধ্যে আরবিআই এই ব্যাঙ্ক দুর্নীতিকে মোট আটটি ভাগে ভাগ করেছে। এগুলি হল: ভুয়ো অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে জালিয়াতি, যান্ত্রিক পদ্ধতিতে জালিয়াতি, বিদেশি মুদ্রার লেনদেন, অনুমোদন ছাড়াই ক্রেডিটের সুবিধা প্রদান, গাফিলতি ও নগদে ঘাটতি, টাকা আত্মসাৎ ও অপরাধমূলক ভাবে বিশ্বাসভঙ্গতা, প্রতারণা ও জালিয়াতি, সম্পত্তি রূপান্তর এবং অন্যান্য।

RBI -এর তরফে দেওয়া ব্যাঙ্ক দুর্নীতির হিসেব (Bank Frauds in India)

১) রিজার্ভ ব্যাঙ্কয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গত ২০১৫ সালের ১ এপ্রিল থেকে শুরু করে ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রায় ২ লক্ষ ৫০ হাজার কোটি টাকার আর্থিক জালিয়াতি (Bank Frauds in India) ধরা পড়েছে ভারতে।

২) শেষ পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০১৫ – ২০১৬ অর্থবর্ষে মোট ৬৭ হাজার ৭৬০ কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে।
৩) ২০১৬ – ২০১৭ অর্থবর্ষে মোট ৫৯ হাজার ৯৬৬.৪ কোটি টাকার দুর্নীতির হিসেব দেখিয়েছে ব্যাঙ্ক।
৪) পরবর্তী দু-বছর অর্থাৎ ২০১৭ – ২০১৮ এবং ২০১৮ – ২০১৯ অর্থবর্ষে জালিয়াতির পরিমাণ কিছুটা কমে এসে দাঁড়িয়েছে ৪৫ হাজার কোটি টাকা।

৫) আরও কমে ২০১৯ – ২০২০ অর্থবর্ষে জালিয়াতির পরিমাণ এসে দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ৬৯৮.৪ কোটি টাকা।
৬) ২০২০ – ২০২১ অর্থবর্ষে জালিয়াতির পরিমাণ ফের কিছুটা কমে দাঁড়ায় ১০ হাজার ৬৯৯.৯ কোটি টাকা।
৭) এ পর্যন্ত পাওয়া সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০২১ – ২০২২ অর্থবর্ষের শুরুর নয় মাসে ৬৪৭.৯ কোটি টাকার দুর্নীতির হিসেবে পাওয়া গেছে।

আরও পড়ুন, ব্যাংকে দিতে হবে নতুন ডকুমেন্টস, বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

এতদসত্ত্বেও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের দেওয়া বার্তা অনুযায়ী, নিরাপত্তা বেড়াজাল টপকে যে সমস্ত দুর্নীতির বিষয় সামনে এসেছে বা দুর্নীতি সংক্রান্ত যে সমস্ত অভিযোগ ইতিমধ্যে জমা পড়েছে তারই ভিত্তিতে উপরিউক্ত সমস্ত তথ্য প্রদান করেছে আরবিআই। তবে অনেকের ধারণা এই তথ্যের বাইরে ব্যাঙ্ক দুর্নীতিতে খোয়া যাওয়া টাকার পরিমাণ আরো বেশি হতে পারে নিঃসন্দেহে।

আর সর্বোপরি এই টাকা লস হচ্ছে কার (Bank Frauds in India)? সেকথা বলার অপেক্ষা রাখেনা। দেশের সম্পদ কমলে সব দিক দিয়েই পিছিয়ে যাবে। আর তার সাথে কমবে সুদ আর বাড়বে ঋণের বোঝা। আপনার কি মনে হয়? এই টাকা কি আপনার গুনতে হচ্ছে? নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।
Written By Manisha Basak

আরও পড়ুন, SBI এর ফিক্সড ডিপোজিটকে টেক্কা দিতে পোস্ট অফিসের এই নতুন স্কিম, জানুন বিস্তারিত

এই প্রথম সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য পোস্ট অফিসে এলো নতুন স্কিম, ঝড়ের গতিতে বাড়বে টাকা

শেয়ার করুন: Sharing is Caring!

Leave a Comment